eSIM: নির্দিষ্ট কোন সার্কেলে সিম কার্ড ছাড়াই পরিষেবা উপলব্ধ! 5G প্রযুক্তিতে Vi এর গুরুত্বপূর্ণ নির্ধারণ।

Jacksons

eSIM

বসন্তেও ফুল উঠছেনা Vodafone-এর বাগানে, ব্যবসায়িক ক্ষেত্রে পিছিয়ে পড়ার কারণ সংস্থা নিজেই! এতে প্রতিস্থাপনের জন্য বাংলাদেশের প্রধান টেলিকম অপারেটর ভোডাফোন আইডিয়া, বা ভি, অসন্তোষের অনুভুতি দেখাচ্ছে। এখনও নিজের গ্রাহকদের জন্য নতুন প্রজন্মের 5G নেটওয়ার্ক চালু করে উঠতে পারেনি Vi। এই নিয়ে দেশের তৃতীয় প্রধান টেলিকম অপারেটরটি সাধারণ মানুষের অসন্তোষের পাশাপাশি সরকারি বিভাগের তোপের মুখেও পড়েছে।

এখন, বসন্ত এসে গেলেও Vi-এর বাগান সেজে ওঠার সম্ভাবনা নেই বলেই মনে হচ্ছে! না, এ কোনো কাব্যকথা নয়, আসলে ব্যাপারটা হচ্ছে যে সংস্থাটি বর্তমানে তার eSIM সার্ভিস শুধুমাত্র নির্বাচিত টেলিকম সার্কেলের প্রিপেইড গ্রাহকদের জন্যই উপলব্ধ রেখেছে। তাছাড়া Vodafone-এর তরফে পোস্টপেইড কাস্টমারদের eSIM সার্ভিসে অগ্রাধিকার দেওয়া হচ্ছে।

যদিও ভারতে এই ডিজিটাল সিমের প্রচলনের বিষয়টি এখনও প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে এবং এটি শুধুমাত্র ফ্ল্যাগশিপ রেঞ্চের নির্বাচিত কয়েকটি স্মার্টফোন মডেলেই কাজ করে, তাও Vi-এর eSIM পরিষেবা সংক্রান্ত পদক্ষেপ বা সীমাবদ্ধতা তার কাস্টমারবেসের ওপর ক্ষতিকর প্রভাব ফেলতে পারে, কেননা এখন অধিকাংশই সময়ের সাথে আপডেট থাকতে চান।

এখন Vi এর eSIM কারা পাবেন?

যদি আপনি ভোডাফোন আইডিয়ার গ্রাহক হন এবং আপনি সিম কার্ডের বিনিময়ে ডিজিটাল সেবা উপভোগ করতে চান, তবে আপনাকে নিশ্চিত করা উচিত যে আপনার ফোনে ই-সিম সাপোর্ট আছে। আপনি চাইলে ভিআইপির কাস্টমার কেয়ার টিমের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন বা কোম্পানির ওয়েবসাইটে তথ্য প্রাপ্ত করতে পারেন। মনে রাখা উচিত যে, এই সময়ে ই-সিম সেবা কেবল মুম্বাই, গুজরাট, মহারাষ্ট্র এবং পাঞ্জাব সার্কেলের প্রিপেইড গ্রাহকদের জন্য উপলব্ধ রয়েছে। অন্যত্রে, আপনি এই সুবিধা পাবেন না।

ভোডাফোন-আইডিয়ার পোস্টপেইড গ্রাহকদের জন্য, ই-সিম পরিষেবা বিভিন্ন অঞ্চলে উপলব্ধ। কলকাতা, বাংলার অন্যান্য অংশ, মুম্বাই, দিল্লি, গুজরাট, পাঞ্জাব, মহারাষ্ট্র, গোয়া, ইউপি (পূর্ব), কর্ণাটক, কেরালা, চেন্নাই, তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশ, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ (পশ্চিম) এবং বিহারে ইসিমের সুবিধা পাবেন।

তাহলে যদি আপনি পশ্চিমবঙ্গে থাকেন এবং ভোডাফোনের ই-সিমের সুবিধা উপভোগ করতে চান, আপনার পোস্টপেইড কানেকশন ব্যবহার করতে হবে। নিজের রেগুলার বা ফিজিক্যাল সিমকে ই-সিমে ট্রান্সফার করতে বা নতুন ই-সিম পেতে, নিকটতম ভিআই স্টোরে গিয়ে বা কোম্পানির কাস্টমার কেয়ার টিমের হেল্পলাইনে যোগাযোগ করতে হবে।

ই-সিমের উপযুক্ততা ও সুবিধাসমূহের সাথে ভোডাফোনের গ্রাহকরা সহজেই জোরে যোগ দেওয়া যেতে পারেন। এই প্রযুক্তির সাথে সম্পৃক্ত কোনও সমস্যা বা প্রশ্নের জন্য সহজেই ভিআই বা তাদের কাস্টমার কেয়ার সাপোর্টে যোগাযোগ করা যেতে পারে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

এসিম প্রায় সকল ধরণের স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, স্মার্টওয়াচ এবং আরও অনেক ডিভাইসে ব্যবহার করা যাবে।

আপনার ফোনের সেটিংস মেনু থেকে এসিম সেটিংসে যান এবং "এসিম চালু" অপশনটি চলুন। এসিম চালু করার পরে, নেটওয়ার্কে যোগ দেওয়ার জন্য নির্দিষ্ট পদক্ষেপ অনুসরণ করুন।

হ্যাঁ, আপনি নিজের বর্তমান সিমকার্ড থেকে এসিমে ট্রান্সফার করতে পারেন কিংবা নতুন এসিম প্রাপ্ত করতে পারেন।

এসিম সক্রিয় করার জন্য, আপনার সিমের নম্বর এবং কাউন্টারসাইনে প্রদত্ত পরিচিতির তথ্য সহ কোনও প্রয়োজনীয় নথি প্রদান করতে হবে।

উপসংহার

eSIM একটি উন্নত প্রযুক্তি যা সিম কার্ডের প্রয়োজনতা কমিয়ে দেয়। এটি নির্দিষ্ট অঞ্চলে বিশেষ সুবিধা প্রদান করে এবং মুহূর্তেই 5G প্রযুক্তির প্রয়োগে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে পারে। Vi এর এই প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত এই প্রযুক্তির গতি এবং বিশ্বাসযোগ্যতা বৃদ্ধি করে।

Leave a Comment