গাড়ি ডিজেলে চলে, কিন্তু বাইক-স্কুটার কেন শুধু পেট্রলে? কারণ জানলে অবাক হবেন

Jacksons

কিন্তু বাইক-স্কুটার

পেট্রোলের দাম বাড়তে থাকায় এখন অনেকে বাইক চালাতে পেট্রোল ইঞ্জিনের পরিবর্তে বৈদ্যুতিক টু হুইলার বেছে নেওয়ায় অনেকে উত্সুক হয়েছেন। এই পরিবর্তনের পিছনে মূল কারণ হলো বিদ্যুৎ বা ব্যাটারি চার্জ করা খরচ অনেক কম এবং পরিবেশ বান্ধবতা বৃদ্ধি করার আগ্রহে। এছাড়াও, বৈদ্যুতিক টু হুইলারের চালনা মোটরসাইকেলের বিমানের মতো স্বাভাবিক ধ্রুবক চালনার সাথে সাথে কার্যকর স্বচ্ছ এনভায়রনমেন্ট ব্যাপারে বিদ্যমান প্রযুক্তি ও বিপন্ন সম্পর্ক সেসময় সংগঠন পূর্ববর্তী হয়ে যাচ্ছে।

ডিজেলের দাম পেট্রোলের চাইতে কম হলেও, বাইকে পেট্রোল ইঞ্জিন ব্যবহারের পদ্ধতি বিবেচনা করা প্রয়োজন। একটি মোটরসাইকেলের পেট্রোল ইঞ্জিন আমাদের দৈনন্দিন ব্যবহারের জন্য এখনও অনেক উপযুক্ত হতে পারে। যেমন, পেট্রোল ইঞ্জিন ব্যবহার করে মোটরসাইকের সাথে প্রাকৃতিক অনুভূতি থাকে, এবং মোটরসাইকের মূল ধারণার উপর ভিত্তি করে প্রোগ্রামিং ও ডিজিটাল প্রযুক্তি নির্ভরতা কম থাকে।

বাইকে পেট্রোল ইঞ্জিন ব্যবহৃত হয় কেন?

কারিগরি বিশেষজ্ঞ রেবেকা উইলিয়ামস এই প্রশ্নের উত্তরে বলেছেন, ডিজেল ইঞ্জিন হচ্ছে অধিকতর কার্যকর, কম নির্গমন ও হাই টর্ক উৎপাদনকারী। বলতে গেলে সবদিক থেকেই পেট্রোল চালিত ইঞ্জিনের চাইতে এগিয়ে। কিন্তু বিষয় হচ্ছে, ডিজেল ইঞ্জিন গ্যাসোলিন অথবা ইলেকট্রিক মোটরের তুলনায় অনেক বেশি ভারী। কারণ এতে ব্যবহৃত যন্ত্রাংশের পরিমাণ বেশি। এই বিষয়ে বেশিরভাগ কোন ভারী যন্ত্রাংশ নিয়ন্ত্রণের জন্য একটি প্রয়োজনীয়তা হিসাবে বিবেচিত হয়, যা বায়ু যানবাহনের অস্থিরতা ও অধিক প্রয়োজনীয় পরিমাণের ইনজিন তৈরি করে।

কাজেই বোঝা যাচ্ছে, মোটরসাইকেলে যদি ডিজেল ইঞ্জিন ব্যবহৃত হয় সেক্ষেত্রে সার্বিক ওজন বৃদ্ধি পাবে। কমবে গতি। টু-হুইলারে গতি বেশি পাওয়ার জন্য ওজন কম রাখা অত্যন্ত জরুরী। এটি বাইক বা স্কুটারের বেশি বেজাল এবং ক্ষুদ্র আয়তনের মূল বিবেচনা হিসাবে অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। সেজন্য বাইক বা স্কুটারে ডিজেল ইঞ্জিন ব্যবহৃত না হওয়ার এটিও একটি অন্যতম কারণ।

একইভাবে, ইঞ্জিন এবং প্রযুক্তির এই দৌড়ে, প্রযুক্তি বিকাশের এই ক্ষেত্রে ইঞ্জিনের পরিকল্পনা এবং ডিজাইন গুরুত্বপূর্ণ অংশ। ডিজেল ইঞ্জিনের ব্যবহারের ক্ষেত্রে সাস্থানিক নীতি এবং পরিবেশের সন্তুষ্টির ক্ষেত্রে মানুষের চিন্তা এবং অপরিহার্যতা অনেক গুরুত্বপূর্ণ। এই দিকগুলি বিবেচনা করে, ডিজেল ইঞ্জিনের ব্যবহার এবং পরিবেশ সংরক্ষণের দিকে গবেষণা ও উন্নতির কাজ চলতে থাকবে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

ডিজেল এনজিন বাইক এবং স্কুটারে ব্যবহৃত হলে তার ইঞ্জিনে জর্জরে ব্যবহারের সুযোগ বেশি হয়, যা স্কুটার এবং বাইকের ক্ষেত্রে সহ্য করা যায় না

বাইক এবং স্কুটারে পেট্রলের ব্যবহার বেশি হলে এটির ইঞ্জিন সহ্যতা বাড়ে এবং ইঞ্জিনের মোটর সাইকেলের সম্পর্কে জনপ্রিয়তা সহ্য করা যায়।

ডিজেলে বাইক এবং স্কুটারের একটি প্রধান সুবিধা হলো এটির কম খরচ। ডিজেল এক্সপ্লোশন এবং তাপ সহনশীলতা বাড়ায় এবং এটি দ্রুত চালানো যায়।

ডিজেল এনজিন ব্যবহারে হালকা এবং দ্রুত চালানো যায়, যা বাইক এবং স্কুটারের এনজিনের পরিধি থেকে সুবিধা সরবরাহ করে।

উপসংহার

গাড়ি ডিজেলে চলতে সম্পৃক্ত সমস্যাগুলির চেয়ে বাইক এবং স্কুটারে ডিজেল ইঞ্জিন ব্যবহারের বিষয়ে একাধিক কারণ রয়েছে। সাধারণত ডিজেল ইঞ্জিন গাড়ির জন্য বেশি ওজন ও ভেতরে অধিক গুরুত্বপূর্ণ অংশ অন্তর্ভুক্ত হয়ে থাকে, যা বাইক এবং স্কুটারের জন্য সমানুপাতিক নয়। এছাড়াও, বাইক এবং স্কুটার প্রায় সরাসরি সড়কে ব্যবহৃত হয় এবং স্মালার সাইজের সাধারণ ট্রান্সপোর্টেশন প্রেফার করা হয়, যেটি বাইক ও স্কুটারের ডিজেল ইঞ্জিনের ব্যবহারের প্রধান বাধা হিসাবে উঠতে পারে।

এছাড়াও, বাইক এবং স্কুটার অধিকাংশই স্মালার ইংজিন সাইজের হয়ে থাকে এবং ডিজেল ইঞ্জিন সাধারণত মাইলেজ এবং সংস্থান উন্নতির দিকে বেশ চাপিয় থাকে। তার পরিবর্তে, পেট্রোলে চলা বাইক এবং স্কুটার অধিক স্বচ্ছতা ও মাইলেজ সরবরাহ করতে পারে এবং তারা বাইক ও স্কুটার ব্যবহারকারীদের জন্য সহজে ব্যবহারযোগ্য থাকে। এই সমস্যা সম্পর্কে প্রচুর বিকল্প ইতিহাস থাকে, কিন্তু বাইক এবং স্কুটার পেট্রোল চালিত হওয়ার কারণে এই পথসমূহ বেশি প্রচারিত হয়েছে।

Leave a Comment