KTM ঝড় তুলল বাজারে, একসঙ্গে ভারতে আনল পাঁচটি নতুন বাইক

Jacksons

KTM

ক্রেতাদের দীর্ঘদিনের চাহিদা পূরণে ভারতীয় বাজাজের নেতৃত্বে কেটিএম (KTM) কোম্পানি প্রতিটি বাইকের নতুন কালার অপশন উপলব্ধ করল। Duke রেঞ্জ ছাড়াও, বাজাজের নোটারিয়াস ব্র্যান্ড KTM এখন RC ও Adventure সিরিজের পাঁচটি মডেলে নতুন রঙের চাদরে পারিশ্রমিক করেছে। ২৫০ এবং ৩৫০ Adventure এবং RC ১২৫, RC ২০০ এবং RC ৩৯০ এমন বাইকের নতুন কালার অপশন উন্মোচিত হয়েছে যা বিভিন্ন রঙের চিত্রে প্রকাশিত হয়েছে। এই নতুন অপশন সাধারণভাবে মূল মূল্যতে কোন পরিবর্তন ঘটাতেন না, তবে ব্যবহারকারীদের জন্য এটি একটি আরও আকর্ষণীয় অপশন উপস্থাপন করে।

এই পরিস্থিতিতে, বাজাজের কেটিএম নতুন কালার অপশন উন্মোচিত করা নিশ্চিত করে ক্রেতাদের প্রত্যাশা অনুযায়ী চালু থাকে। গত মাসে বিশ্ব বাজারে প্রকাশিত হয়েছিল এই নতুন কালারের বাইক মডেলগুলি, এখন তা ভারতেও উপলব্ধ হয়েছে। এই ধারাবাহিক প্রক্রিয়ায় কোম্পানি তার মার্কেট প্রেসেন্সকে আরও বাড়ানোর চেষ্টা করে যাচ্ছে এবং সেই প্রস্তুতি নিয়ে ক্রেতারা উত্সাহিত হয়ে উঠছেন।

2024 KTM 250 Adventure – Revamped for the Ultimate Riding Experience

২০২৪ এর কেটিএম ২৫০ অ্যাডভেঞ্চার মডেলে দুটি নতুন রঙের অপশন যোগ করা হয়েছে – লুনার গ্রে এবং নয়া ব্লু শেড। এই রঙগুলির উপর ম্যাট ফিনিশ যুক্ত করা হয়েছে, যা বাইকের সুন্দরতা এবং রক্তস্রোত বানানোর জন্য প্রতিষ্ঠানগুলির সুযোগ সৃষ্টি করেছে। এই বাইকের ইঞ্জিন হিসেবে ২৪৮.৮ সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার ব্যবহৃত হয়েছে, যা পূর্বের মতো সার্বিক ৯,০০০ আরপিএম গতিতে ৩০ বিএইচপি শক্তি এবং ৭,৫০০ আরপিএম গতিতে ২৪ এনএম টর্ক উৎপন্ন করে। এছাড়াও, এই বাইকের সাথে সংযুক্ত হয়েছে ৬-গতির গিয়ারবক্স এবং স্লিপার ক্লাচ, যা একটি অভিজ্ঞ ও স্বতন্ত্র রাইডিং অভিজ্ঞতা সরবরাহ করে।

এই নতুন রঙের সহিত কেটিএম ২৫০ অ্যাডভেঞ্চার মডেলটি আকর্ষণীয় ডিজাইন এবং উন্নত ইঞ্জিন পারফরমেন্সের সাথে সাহায্য করে রাইডারদের স্বপ্নময় অভিজ্ঞতা অর্জন করতে। এই বাইকের প্রযুক্তিগত উন্নতি ও স্থায়িত্ব সাথে, এটি ভ্রমণের জন্য অত্যন্ত সহজ এবং উপযুক্ত একটি বিকল্প হিসাবে মনোনিবেশ পায়। কেটিএম ২৫০ অ্যাডভেঞ্চার একটি সাধারণ পথ যাত্রীর জন্য সাথে সঙ্গে একটি রোমান্টিক ভ্রমণ অভিজ্ঞতা উপহার দিতে পারে।

এই নতুন কালার স্কিমের সঙ্গে, কেটিএম ২৫০ অ্যাডভেঞ্চার বাইকটি আরও আকর্ষণীয় হয়েছে এবং বিভিন্ন প্রকারের রাইডারের জন্য সম্পূর্ণ কাস্টমাইজ সুযোগ উপলব্ধ করে। এটি একটি স্থায়িত্বশীল এবং ভরবেগ ব্যালান্সকৃত সহজ রাইডিং সরবরাহ করে, যা রাইডারদের প্রতিদিনের কঠিন অবস্থায় এবং ভ্রমণের সময়ে অভিজ্ঞতা অনুভব করার জন

The 2024 model of the KTM 390 Adventure

2024 সালে KTM 390 Adventure একটি নতুন আকারে ও ব্ল্যাক কম্বিনেশনের সাথে গ্রে ও হোয়াইট কালার অপশনে প্রকাশিত হয়েছে। এটির সাথে সংযুক্ত হয়েছে বিভিন্ন ধরনের আকর্ষণীয় গ্রাফিক্স, যা এটির রোমাঞ্চক মুখোমুখি করে। 390 Adventure আগামীকালের যাত্রাবাহী গাড়ির মানের সাথে আগ্রহী এই বাইকটি সহজেই বাজারে পাওয়া যায়।

এই মডেলে থাকছে একটি ৩৭৩ সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন, যা শক্তিশালী এবং দ্রুত। ইঞ্জিনের গতির পরিসীমা ৯,০০০ আরপিএম এবং ৭,৫০০ আরপিএম এর মধ্যে হয়েছে, যা সম্পূর্ণ নতুন অভিজ্ঞতা দেয়। এছাড়াও, ইঞ্জিনের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে ৬-গতির গিয়ারবক্স ও বাই ডিরেকশনাল কুইক শিফ্টার, যা বাইকটির চালনায় নতুন অভিজ্ঞতা যোগ করে তুলেছে।

KTM RC 390 of the year 2024

২০২৪ সালের নতুন মডেল, KTM RC 390, বিক্রির জন্য প্রস্তুত। এই নতুন সংস্করণে আপনি দেখতে পাবেন একটি সম্পূর্ণ নতুন ফ্যাক্টরি রেসিং অরেঞ্জ কালার স্কিম, যা ব্রাইট এবং জেবরের অনুকরণ করে। এর সাথে মিলিয়ে আছে অরেঞ্জ-অন-ব্লু কম্বিনেশন, যা এই বাইকের গম্য সৃজন করে।

এই শক্তিশালী মোটরসাইকেলটির হৃদয়ে রয়েছে ৩৭৩.২৭ সিসি এলিকুইড কুল্ড, সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন। এই ইঞ্জিনের আউটপুট ৯,০০০ আরপিএম গতিতে ৪৩ বিএইচপি এবং ৭,০০০ আরপিএম গতিতে ৩৭ এনএম। এই শক্তির সাথে মিলিয়ে আছে ৬-স্পিড গিয়ারবক্স, যা মোটরসাইকের পারফরমেন্সকে আরও ভাড়া দেয়।

KTM RC 390 একটি বিশেষ অভিজ্ঞতা সরবরাহ করে, যা রেসিং পরিবেশে আপনার অভিজ্ঞতা উন্নত করবে। এটি স্পর্ধাত্মক মোডের জন্য আপনাকে প্রস্তুত করে, আপনার দ্রুততা এবং নিরাপত্তার জন্য।

Revamped for 2024: KTM RC 200

২০২৪ সালের কেটিএম আরসি ২০০ বাইকটি একটি নতুন রূপে পরিবর্তিত এবং এখন দুটি আকর্ষণীয় রঙে উপলব্ধ। এই নতুন ভার্সনে একটি পুরো কালো রঙ এবং অন্যটি অল ব্লু রঙে প্রকাশ পায়। এই বাইকে একটি ২০০ সিসি সিঙ্গেল সিলিন্ডার লিকুইড কুল্ড ইঞ্জিন থাকে, যা গতি সরাসরি উত্পন্ন করে এবং যা ১০,০০০ আরপিএম গতিতে ২৫ বিএইচপি শক্তি এবং ৮,০০০ আরপিএম গতিতে ১৯.২ এনএম টর্ক উত্পন্ন করে। এই বাইকে যোগ্য সঙ্গত এবং সঠিক গতি প্রদানের জন্য একটি ৬-ধাপ গিয়ার সিস্টেম সহযোগী করে দেওয়া হয়েছে।

কেটিএম আরসি ২০০ এখন আরও বেশি আকর্ষণীয় এবং স্পেসিফিকেশনে সমৃদ্ধ। নতুন রূপে লঞ্চ হওয়া এই বাইক এর চাদরের দুটি রঙ ব্যাপক রুচিকর এবং ভিন্নতা যোগ করে। সর্বোত্তম গতিতে এবং প্রফর্মেন্সে ভাল হওয়ার জন্য এই বাইকের ইঞ্জিন এবং গিয়ার সিস্টেম পরিষ্কার করা হয়েছে, যা ব্যবহারকারীদের অনেক উচ্চ অভিজ্ঞতা অনুভব করতে সাহায্য করে। সাথেই সাথে নতুন ডিজাইনে এই বাইকের আকর্ষণীয়তা আরো বাড়িয়েছে এবং বাইকের পরিপ্রেক্ষিত চারিপাশে একটি নতুন আবহাও তৈরি করেছে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

2024 সালের KTM RC 125 এর নতুন মডেলগুলি এখন দুটি আর্কেস্টাইলের কালার স্কিমে উপলব্ধ – সেই হলো ব্ল্যাকের সাথে অরেঞ্জ এবং ব্লুয়ের সাথে অরেঞ্জ। এই দুটি মডেলের জন্য প্রযোজনীয় হুইল ও ফ্রেম এখন গ্লসি ব্ল্যাকে প্রস্তুত করা হয়েছে। তাদের সাথে আসছে ডার্ক কালারের স্ক্রিন যা বাইকের নজরদারি এবং স্টাইলিশ মুখোশের সাথে সঙ্গী হয়েছে।

এই বাইকে পাওয়া যাবে ১২৪.৭ সিসি লিকুইড কুল্ড ইঞ্জিন, যা অত্যন্ত সম্পর্কযোগ্য এবং সহজেই বহন করা যাবে। এই শক্তিশালী ইঞ্জিনের মাধ্যমে বাইক এ পাওয়া যাবে ১৪.৩৪ বিএইচপি এবং ১২ এনএম পাওয়া যাবে। ইঞ্জিনের গতি কন্ট্রোল করার জন্য বাইকে ৬-স্পিড গিয়ার সিস্টেম প্রয়োজন মিলেছে।

এই নতুন এবং আত্মপ্রকাশশীল ডিজাইনের সাথে KTM RC 125 এখন আরও আকর্ষণীয় হয়ে উঠেছে। তার প্রযুক্তিগত সুযোগ এবং আধুনিক ফিচারগুলি ব্যবহারকারীদের এক নতুন অভিজ্ঞতা অনুভব করাতে সাহায্য করবে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

দাম বিষয়টি বাইকের মডেল, বৈশিষ্ট্য, এবং বাজারের প্রতিস্থিতির উপর নির্ভর করে, তবে প্রায় ২ লাখ টাকা থেকে প্রায় ৫ লাখ টাকার মধ্যে দাম হতে পারে।

সঠিক ফাংশনিং এবং সার্ভিস সংরক্ষণের জন্য, প্রতিটি ৩,০০০ মাইলে বা ৬ মাসে একটি সার্ভিস প্রয়োজন হতে পারে। মাইলেজ এবং ব্যবহারের প্রকৃতি অনুযায়ী, এটি বেশি বা কম হতে পারে।

KTM বাইক গ্যারান্টি প্রদান করে যাতে কোনও সাধারণ মেশিন বা কারখানার ত্রুটির জন্য ক্রেতা নিরাপত্তা অনুভব করেন না। সাধারণত, এটি একটি ২ থেকে ৫ বছরের মধ্যে সম্পূর্ণ বা আংশিক গ্যারান্টি অনুমোদন করে।

কেবল ক্রেতারা যাদের আগ্রহ থাকে তারা কোনও KTM বাইক ডিলারশিপ বা সার্ভিস সেন্টারে যেতে পারেন যেখানে উত্তরগ্রহণ ও পরামর্শ পাওয়া যায়। এছাড়াও, অনলাইনে KTM বাইকের বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যায় ওয়েবসাইটে।

উপসংহার

KTM-র এই নতুন পাঁচটি বাইকের উত্কৃষ্ট সার্বিক প্রদর্শন, আকর্ষণীয় ডিজাইন এবং উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে বাইক বিশ্বের ক্ষেত্রে এক পর্যায়ে উচ্চ মর্যাদায় তুলে ধরেছে। নতুন ইঞ্জিন এবং সুস্থ প্রযুক্তির সাথে এগিয়ে এই বাইকগুলি নিরাপদ, স্থিতিশীল এবং কার্যকর হিসাবে পরিচালিত হয়। এই নতুন লঞ্চের সাথে, KTM ভারতের বাইক বাজারে আরও একটি দক্ষিণ প্রতিষ্ঠান সাধারণ করেছে, যা প্রযুক্তিগত অগ্রগতি এবং উন্নত প্রযুক্তির সাথে সাথে উচ্চ মানের বাইক তৈরি করে। সুতরাং, ব্যবহারকারীদের আকর্ষণীয় ডিজাইন, প্রায় ২ লাখ টাকা থেকে প্রায় ৫ লাখ টাকার মধ্যে দাম, এবং সামর্থ্যশালী সার্ভিস সুবিধার সাথে পরিচালিত বাইক কেনার মাধ্যমে ব্যক্তিগত এবং পেশাদার চালনা অভিজ্ঞতা অর্জন করা সহজ।

Leave a Comment