Mercedes Maybach: এই বহুমূল্য গাড়ির মূল্য ৩.৫ কোটি টাকা, যা দেশের তিনটি চিত্রতারকারের সংগ্রহে পরিচিত।

Jacksons

Updated on:

Mercedes Maybach

গাড়ির সংগ্রহের বিষয়ে তারকারা সারা বিশ্বে অত্যন্ত জনপ্রিয়। ভারতীয় তারকারাও এই ব্যাপক প্রশংসায় অংশীদার নয়। ক্রিকেট জগতের অভিজাত খেলোয়াড় থেকে চলচ্চিত্র জগতের মহানায়ক, সকলের সামনেই তাদের গাড়ির পছন্দ নজর পড়ে। কিছু তারকারা টু সিটার স্পোর্টস গাড়ি ব্যবহার করেন, তবে অধিকাংশে তারা Rolls-Royce থেকে Bentley-র লাক্সারি গাড়ি চালান।

সেলিব্রিটিদের মধ্যে Mercedes-Benz এর গাড়ির জন্য একটি বিশেষ পছন্দ রয়েছে। এই কোম্পানির Maybach মডেলের প্রতি তাঁদের নিজের একটি অতিরিক্ত অনুভূতি রয়েছে। ভারতীয় ক্রিকেটার আজিঙ্কা রাহান সম্প্রতি দুধ সাদা রঙের Mercedes-Benz GLS 600 SUV মডেলটি বাড়ি নিয়ে এসেছেন। এই গভীর সাদার পরিষেবা তাঁকে সম্প্রতি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

গাড়ির মাধ্যমে অসাধারণ স্টাইল ও প্রভাব তৈরি করে নিতে যারা চিত্রতারকা তাদের সংগ্রহে আরও একটি চাপ যুক্ত করেছেন। এমন আরও বেশ কয়েকজন চিত্রতারকার আছেন যারা উল্লেখযোগ্য গাড়ি পছন্দ করেন এবং তা নিজের সংগ্রহে রাখেন।

রণবীর সিং পুনঃরচিত হলেন।

তালিকার প্রথমেই রয়েছে অন্যতম জনপ্রিয় বলিউড অভিনেতা রণবীর সিং এর নাম। তাঁর গ্যারেজে ডার্ক ব্লু কালার স্কিমের Mercedes-Benz GLS 600, Jaguar XJ এবং Aston Martin Rapide রয়েছে। রণবীরের গাড়ির সমৃদ্ধ সংগ্রহে আরো প্রস্তুতির মনে আছে, যেমন Lamborghini Urus, যা হামেশাই তার সঙ্গে ঘুরতে দেখা যায়।

তার প্রিয় গাড়ির মধ্যে Mercedes-Benz GLS 600 সবচেয়ে অত্যন্ত জনপ্রিয়, যেটি তার গ্যারেজে সংরক্ষিত রয়েছে। তাঁর সমৃদ্ধ গাড়ির সংগ্রহে একে অন্যের মত অনেক গরিবদের হাসি নিয়ে আছে, যেখানে প্রতি গাড়ি একটি আলাদা অভিজ্ঞতা নিয়ে উঠে। রণবীরের গ্যারেজের প্রতিটি গাড়ি একটি অসাধারণ অভিজ্ঞতা প্রদান করে, যা তার অদ্ভুত রসায়ন এবং সমৃদ্ধ রূপ প্রত্যাশা করে।

আর্জুন কাপুর

তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন আরও একজন বলিউড সেলিব্রিটি অর্জুন কাপুর। রণবীর সিংহের মত তিনিও একটি ডার্ক ব্লু শেডের Mercedes-Benz GLS 600-তে ঘুরে বেড়ান। তার গ্যারেজে রয়েছে অবশ্যই ল্যান্ড রোভার ডিফেন্ডার, মাসেরাটি লেভান্টে, এবং ভোলভো এক্সসি 90। এই বৈশিষ্ট্যময় গাড়ীগুলি তার শোখের সঙ্গে তার শখের কাছে এক নিশ্চিত অংশ।

অর্জুন কাপুরের গ্যারেজে পাওয়া গাড়ীর নকশা তার অভিনয়ের মতো রহস্যময় এবং স্টাইলিশ। এই উচ্চমানের গাড়ির ধারণা করে তিনি প্রকৃত অভিনয়ের মতো উচ্চ উত্সাহী এবং আত্মবিশ্বাসী মনে হতে পারেন। তার গাড়ীর প্রতিটি বিশেষত্ব তার স্টাইল এবং শখের সাথে মিলে সে একটি আলোকচিত্রের মতো প্রকাশ করে।

অজয় দেব গন

যখন কথা হয় লাক্সারি গাড়ির, তখন অজয় দেবগনের নাম অব্যাহতভাবে উঠে আসে। তার সম্মিলিত গাড়ির তালিকা ছাড়াও ‘হাম দিল দে চুকে সনাম’ চলচ্চিত্রের প্রধান অভিনেতার রূপে রয়েছে মার্সিডিস-বেন্স GLS 600, যা সৃষ্টিকর্তা ছাড়া অন্য গড়গড় লাগে। তারপরেও, এই অভিনেতার ব্যাপক সংগ্রহে রয়েছে আরও অনেক আকর্ষণীয় গাড়ি, যেমন Rolls-Royce Cullinan, মার্সিডিস-বেন্স S-Class, BMW i7 এবং X7।

অজয় দেবগনের গাড়ি সংক্রান্ত আলোচ্য হওয়া উচিত, এটি তার সংগ্রহের মূল অংশ। এই শ্রেণীর লুকের মধ্যে রুচি ধরে নেওয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কারণ হল সেগুলির অদ্ভুত ডিজাইন এবং সুবিধাগুলি। এগুলির মধ্যে ভ্রমণ করা অসীম আনন্দের অভিজ্ঞতা সৃষ্টি করে, যা অজয় দেবগনের সময় সুবিধাজনক এবং স্টাইলিশ পছন্দের অংশ।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

মার্সিডেস মায়বাচ গাড়ি সামঞ্জস্যপূর্ণ এবং প্রিমিয়াম সুবিধা সরবরাহ করে, যেমন এক্সক্লুসিভ লাক্সারি ইন্টিরিয়র, বিশেষ আইনতান্ত্রিক ব্যবস্থা, ইলেকট্রিক সিট ম্যাসেজ, এমবিউই সাউন্ড সিস্টেম, এবং অতি দ্রুত প্রযুক্তি।

মার্সিডেস মায়বাচ একটি বহুমূল্য গাড়ি, এটি দেশের তিনটি চিত্রতারকার সংগ্রহে আছে।

মার্সিডেস মায়বাচ গাড়ি আনন্দদায়ক ড্রাইভিং অভিজ্ঞতা, সুন্দর ডিজাইন এবং উন্নত সম্পূর্ণতা সরবরাহ করে। এটি বিশেষভাবে সমৃদ্ধ ও অভিজাত ব্যক্তিদের জন্য উপযুক্ত।

প্রতিটি মার্সিডেস মায়বাচ মডেলে স্বতন্ত্র আকর্ষণ এবং বৈশিষ্ট্য রয়েছে, কিন্তু কিছু মডেল এক্সট্রা লাক্সারি এবং টেকনোলজিতে আরও উন্নতি সরবরাহ করে।

উপসংহার

এই বিষয়ে মার্কিন বিমান উৎপাদন সংস্থা বোইং নিউইয়র্কের একটি বিশেষজ্ঞ জানান, “এই বাজেট এবং ভবিষ্যতের উচ্চ কোটি ব্যবসায়িক মাধ্যমের জন্য বিশেষভাবে আকর্ষণীয় এই গাড়িতে বাজারে আরেকটি উচ্চমূল্য যোগ দেয়া হলো।” আরও একটি বৃহত্তর বিমান উৎপাদন কোম্পানির প্রধান নির্বাহী অফিসার এই বিষয়ে মন্তব্য করেন, “মার্কেটের এই বিশেষ সেগমেন্টে, মার্কিন ব্র্যান্ডের এই গাড়িগুলি প্রথম স্থান নিয়েছে এবং সহজেই গ্রাহকদের সৃজনশীলতা এবং স্থিতিশীলতা সরবরাহ করে।”

Leave a Comment