2025 সালে, আশা করা হচ্ছে যে Tata-Maruti এই 3 শক্তিশালী SUV লঞ্চ করবে যার জন্য আর এক বছর অপেক্ষা করতে হবে।

ভারতীয় গাড়ি বাজারে সম্প্রতি একটি দৃশ্য পরিবর্তন প্রকাশ পেয়েছে, যেটি কেনার অভ্যাসে বদলে গেছে। বেশি স্পেস, উন্নত ফিচার এবং শক্তিশালী ইঞ্জিন সহ উন্নত গাড়ি মডেলগুলি ক্রেতাদের মন জুড়ে নিয়েছে। হ্যাচব্যাক এবং সেডান মডেলের প্রতি রুচি কমেছে এবং তারা সম্প্রতি এসইউভির পথে অগ্রগতি করেছে।

বর্তমানে, কম্প্যাক্ট এসইউভির চাহিদা একেবারেই বেড়েছে এবং এই বিভাগে Mahindra XUV300 facelift একটি উজ্জ্বল উদাহরণ। অতএব, ২০২৫ সালে এমন বিভিন্ন গাড়ি মডেলগুলি আনা হতে চলেছে একাধিক কোম্পানির কাছে, যেগুলির মধ্যে Hyundai, Kia এবং Skoda সহ অনেক জনপ্রিয় নামগুলি রয়েছে। এই পরিবর্তনের সাথে সম্পর্কে আরও বিস্তারিত জানতে, আসুন এই আসন্ন মডেলগুলির বিশদ নিয়ে আলোচনা করি।

Compact SUV from Skoda

গতকালে স্কোডা ঘোষণা করেছে যে, তাদের এন্ট্রি-লেভেল কম্প্যাক্ট SUV মডেলটি ২০২৫ সালের মার্চে ভারতে সম্পূর্ণ নাগাদ লঞ্চ করা হবে। তারা প্রকাশ করেছে, এই গাড়িটি প্রধানত স্থানীয়করণের উপর ভিত্তি করে আসবে, যা MQB A0 IN প্ল্যাটফর্মে নির্মিত হবে। এই নতুন গাড়ির সাথে Kushaq এবং Slavia এর সুযোগগুলি থাকবে যা বাংলাদেশে গাড়ির বাজারে একটি নতুন পরিবর্তন সৃষ্টি করতে পারে। এটি একটি ১.০ লিটার, ত্রিসিলিন্ডার টার্বো পেট্রোল ইঞ্জিন ব্যবহার করবে এবং এটির ম্যানুয়াল এবং অটোমেটিক ট্রান্সমিশন উভয় উপলব্ধ থাকবে এবং এটি ৫-সিটার গাড়ি হিসাবে পরিচিত হবে।

এই উন্নত সংস্করণ গাড়ি ব্যবহারকারীদের কাছে বিভিন্ন ধরনের সুবিধা এনে দেবে, যেমন কোম্পাক্ট সাইজের সাথে সাথে মধ্যম আকারের অবস্থান এবং মধ্যম আকারের সাইজের সাথে বিপরীত করে সুনিধিত বসার অভ্যন্তরের অভাব। এছাড়াও, তার কারগুলির পরিস্থিতি ও সাহায্যের জন্য অদ্বিতীয় প্রযুক্তির সাথে সম্পৃক্ত সব সুযোগ এই গাড়ির অংশ। এই প্রযুক্তিগুলির সাথে সম্পৃক্ত অনেক সুযোগও উপলব্ধ থাকবে, যা ব্যবহারকারীদের পাশে থাকা অভ্যন্তরীণ অভিজ্ঞতা আরো গুরুত্বপূর্ণ করবে।

পরবর্তী প্রজন্মের হাইউন্ডাই ভেন্যু।

হুন্ডাই দ্বিতীয় প্রজন্মের Venue আনতে যাচ্ছে। ২০২৫ সালে এটি দেশের রাস্তায় প্রবেশ করবে, একটি নতুন আগেই অবদানকারী যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে। এটি মূলত অধিগৃহীত তেলেগাঁও কারখানার প্রথম মডেল, যা General Motors থেকে প্রাপ্ত হবে। গাড়িটির কোডনাম Q2Xi, এই নতুন Hyundai Venue-তে সংস্থার লাইনআপে Exter মাইক্রো এসইউভি মডেলটির উপরে স্থান পাবে। এই নতুন মডেলে ভেতর ও বাইরের ফিচারে অনেক আপডেট থাকবে, এবং তার দাম আশা করা হয় তুলনামূলকভাবে বেড়ে যাবে।

এই নতুন Hyundai Venue-র আগমনের সঙ্গে একটি নতুন যুগ শুরু হবে গাড়ি উদ্যোগে। এর মাধ্যমে ব্যক্তিরা আরও সুবিধা এবং উন্নতি অনুভব করতে পারবেন। নতুন টেকনোলজি এবং ডিজাইনের সাথে এই গাড়ি নতুন দিকে নিয়ে যাচ্ছে, যা ব্যক্তিদের আকর্ষিত করবে এবং হুন্ডাই-র উন্নত ইমেজ নিশ্চিত করবে। এই নতুন প্রজন্মের Venue-র প্রবেশ নিশ্চিতভাবে বাজারে একটি প্রতিষ্ঠান গঠন করবে এবং এটির সাথে যুক্ত আধুনিক ফিচার ব্যবহারকারীদের জন্য অধিক আকর্ষণীয় করে তুলবে।

Kia Clavis (AY) পুনঃরচিত হলো।

বিভিন্ন রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে যে, বর্তমানে কিয়া একটি নতুন এসইউভি-র উন্নয়নে হাত লাগিয়েছে। সংস্থার অন্দরমহলে মডেলটিকে AY নামে আখ্যায়িত করা হয়েছে এবং জল্পনা চলছে যে, এতে থাকতে পারে রাগেড স্টাইলিং। দর্শনের দিক থেকে একটি লাইফস্টাইল এসইউভি-র কাছাকাছি হতে পারে, তবে এর অফ-রোডিং ক্যাপাসিটি থাকবে না যেন Maruti Suzuki Jimny এবং Mahindra Thar এর মতো।

বিষয়টির গতি অবলম্বন করে খবর ছড়ায়, কিয়া AY লঞ্চের পরে এটির নাম পরিবর্তন হতে পারে এবং তা Kia Clavis হতে পারে। চলতি বছরের শেষের দিকে এই গাড়ি আন্তর্জাতিক বাজারে পা রাখতে পারে। অনুমান করা হচ্ছে যে, আইসি ইঞ্জিন, হাইব্রিড এবং ইলেকট্রিক – তিন ভার্সনেই এটি হাজির হবে এবং কোরিয়ার রাস্তায় ইতিমধ্যেই এই ফাইভ সিটার গাড়িটি টেস্টিং চলাকালীন ধরা দিয়েছে।

পরবর্তী সময়ে গাড়িটির সম্পর্কে আরও বিশদে জানা যাবে এবং এর সুতরাং উদ্ভাবন, বৈশিষ্ট্য এবং সার্ভিসিং সুবিধার উপর গভীরতর আলোচনা হবে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

[sp_easyaccordion id=”4251″]

উপসংহার

২০২৫ সালে, টাটা এবং মারুতির জন্য ঘুমের অবস্থা সরিয়ে দেওয়ার এক প্রয়াসে, তারা এই ৩ শক্তিশালী SUV গাড়ি লঞ্চ করতে যাচ্ছে। এই ঘোষণা দেওয়া প্রস্তুতির সাথে সহযোগিতা করে, টাটা এবং মারুতি এই ব্যক্তিগত পরিবর্তনের মাধ্যমে বাজারে নতুন এক দিকে পথ চলতে যাচ্ছে। এই প্রয়াসের মাধ্যমে গাড়ির বাজারে নতুন দিক ঠিক করে নেওয়া যাবে এবং গ্রাহকদের জন্য একটি নতুন পরিচিতি উপহার দেওয়া হবে।

Leave a Comment