PhonePe, Google Pay-র ঘুম ওড়াতে আম্বানির নতুন চাল, এবার দোকানে পেমেন্ট করলে ‘হাঁক দেবে’ Jio-ই!v

Jacksons

Google Pay

জিও এখন পেমেন্ট সেক্টরে একটি নতুন উত্সাহদাতা হিসেবে উত্তরাধিকারী পদক্ষেপ নিয়েছে। তাদের নতুন উদ্যোগ, “জিও পে সাউন্ডবক্স”, প্রস্তুতি করছে বিভিন্ন দোকানদারের সহায়তার জন্য। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে সহজেই ট্রানজেকশন সম্পর্কে তথ্য প্রদান করা যাবে এবং দোকানদারের একে অপরের সাথে অব্যাহত যোগাযোগ সম্পন্ন করা যাবে।

জিও পে সাউন্ডবক্স নিয়ে জিও প্রত্যক্ষ হাসপাতালির বিশেষজ্ঞদের মন্তব্য পেলে, এই প্রযুক্তির মাধ্যমে দোকানদাররা প্রতিদিনের কার্যক্রম প্রস্তুত করতে সহায়ক হবেন। এটি কাস্টমারদের জন্য অত্যন্ত সুবিধাজনক হবে, কারণ তারা এখন দোকানে পেমেন্ট করার সাথে সাথেই তাদের ট্রানজেকশনের অবস্থা জানতে পারবেন।

এই উদ্যোগের মাধ্যমে জিও পুনরুত্থান কার্যক্রমের সাথে ধরা দিচ্ছে এবং এটি ভারতের অনলাইন পেমেন্ট সেক্টরে একটি নতুন দিকের জন্য একটি নতুন দিক খুলছে। এই পদক্ষেপের মাধ্যমে জিও নিজেকে নিরাপদ এবং সহজে পেমেন্ট করার একটি প্ল্যাটফর্ম হিসেবে প্রতিষ্ঠা করতে চাচ্ছে, যা দেশের পেমেন্ট সেক্টরে একটি প্রযুক্তিগত উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি বাড়াতে সাহায্য করতে পারে।

Jio Soundbox:আম্বানির টেলিকমের অবতরণ এখন পেমেন্ট সাউন্ডবক্স আনতে চাচ্ছে।

জিও নেটওয়ার্ক পরিষেবা উন্মুক্তের সময়ে তারা অনেকগুলি অ্যাপ লঞ্চ করেছে, যেগুলির মধ্যে অনলাইন পেমেন্ট অ্যাপ্লিকেশন ‘জিও পে’ অন্যতম। কিন্তু এই অ্যাপটি পেতেম, গুগল পে বা পেটিএমের মতো জনপ্রিয়তার সাথে পেরেনি। এই অসম্ভাব্য অবস্থায়, জিও এখন অনলাইন পেমেন্টের ব্যবসা প্রসারিত করতে সাউন্ডবক্স সেবা শুরু করতে চায়। প্রতিবেদন অনুযায়ী, জিও সাউন্ডবক্সের ট্রায়াল শুরু হয়েছে এবং খুব শীঘ্রই এটি ব্যবসায়ীদের হাতে পৌঁছানো হতে পারে। এতে অনেকগুলি সুবিধা সহ সমস্ত দোকানদারের পাশে থাকতে পারে।

সবকিছুর মধ্যে একসঙ্গে মনে হয় যে, মুকেশ আম্বানি এবার পেটিএম কোম্পানিকে টেক্কা দিতে ইচ্ছুক। এর পাশাপাশি, জিওর এই নতুন উদ্যোগের কারণে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলির ব্যবসা উদ্বেগ আরো বাড়তে পারে। এই প্রেক্ষিতে, জিও সাউন্ডবক্সের আলোচনা এমন সময়ে শুরু হয়েছে, যখন পেটিএম কোম্পানি তাদের পেমেন্টস ব্যাঙ্কের সঙ্গে আগে থেকেই অস্বস্তিতে রয়েছে।

জিওর পক্ষে এই নতুন সেবার প্রচারের জন্য সম্ভাব্য কিছু অফার রয়েছে যা সার্বজনিকভাবে ঘোষণা করা হবে। এই সাউন্ডবক্সের মাধ্যমে অনলাইনে লেনদেনের জন্য বেশি সুবিধা আনা সম্ভব। এটি অনুসরণযোগ্য হতে পারে পেটিএম বা অন্য অনলাইন পেমেন্ট সেবার সাথে মুখোমুখি।

তবে, বর্তমানে কেবল Jio Soundbox নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চলছে। বিষয়ে কোম্পানির পক্ষ থেকে কোনো আনুষ্ঠানিক তথ্য দেওয়া হয়নি, তবে একবার এই ডিভাইসটি চালু হলে সেইসব মানুষেরা উপকৃত হবেন, যারা স্মার্টফোন এবং মোবাইল অ্যাপ ব্যবহারে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করেননা।

এই অভিজ্ঞতা মূলত স্মার্টফোনের অভিজ্ঞতার উন্নতির জন্য তৈরি করা হচ্ছে, যার মাধ্যমে গ্রাহকরা অন্যান্য সরঞ্জামের তুলনায় অনেক বেশি উপভোগ করতে পারবেন। এই ডিভাইসটি যে কোনো স্থানে ব্যবহার করা যায় এবং সহজে পোর্টেবল হয়ে থাকা সংগ্রহণ বা গান শোনা যায় এবং এটি সহজেই গোলগাত্তলি করা যায়।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

জিও সাউন্ডবক্স হলো একটি পেমেন্ট সাউন্ডবক্স, যা দোকানে পেমেন্ট করার সময় গ্রাহকের পেমেন্ট সম্পর্কে আপডেট দেয়।

জিও সাউন্ডবক্স ব্যবহার করতে হলে, আপনার মোবাইল এপ্লিকেশনের মাধ্যমে এটি সংযোগ করতে হবে এবং দোকানে পেমেন্ট করার সময় প্রস্তুত থাকতে হবে।

না, জিও সাউন্ডবক্স ব্যবহারে কোনো অতিরিক্ত চার্জ প্রযোজ্য নেই। এটি মূলত একটি বিনামূল্যে পরিষেবা।

জিও সাউন্ডবক্স একটি সম্পূর্ণ নিরাপত্তা অনুযায়ী তৈরি করা হয়েছে এবং এটি এনক্রিপ্টেড সংযোগের মাধ্যমে কার্যকর হয়। তারপরও, সতর্কতা সহকারে ব্যবহার করা উচিত।

উপসংহার

PhonePe এবং Google Pay-এর মতো বিশ্বস্ত পেমেন্ট অ্যাপ্লিকেশনগুলির সাথে মুকেশ আম্বানির জিওর পেমেন্ট সেবা দিনের প্রতিষ্ঠানে নতুন চালের উদ্যোগ নিলেন। এই উদ্যোগের ফলে দোকানে পেমেন্ট করলে জিওর অ্যাপ ব্যবহার করে ‘হাঁক দেবে’ এবং এটির সাথে আসতে পারে অনেকগুলি অফার। এই পথে জিও সাউন্ডবক্স প্রচলিত হতে পারে, যা অনলাইন পেমেন্টের জন্য একটি সহজ এবং বিশ্বস্ত প্রযুক্তি হিসেবে পরিচিত হতে পারে। এই চালের মাধ্যমে জিও প্রতিষ্ঠানে বিপণনে নতুন একটি পাঠ স্থাপন করতে পারে এবং পেটিএম পর্যন্ত পৌঁছাতে পারে

Leave a Comment