বসন্তের সঙ্গে এলেই আরবিআই-র তুলতে শুরু হয়েছে সহজ হাবল পেমেন্টস ব্যাংকের সময়সীমা, যা 15 মার্চ পর্যন্ত বাড়ায়।

Jacksons

Updated on:

আরবিআই

অতিসম্প্রতি রিজার্ভ ব্যাংকের পক্ষ থেকে ‘নিষিদ্ধ’ পেটিএম পেমেন্টস ব্যাংক-এর ডিপোজিট এবং ট্রান্সাকশন সংক্রান্ত কাজকর্মের জন্য অতিরিক্ত ১৫ দিনের সময়সীমা প্রদান করা হয়েছে। এই সময়সীমা প্রদানের মাধ্যমে রিজার্ভ ব্যাংক পেটিএম পেমেন্টস ব্যাংকের কাজকর্ম সংক্রান্ত বিশদ পরীক্ষা করতে পারবে এবং এর কার্যক্ষমতা নিশ্চিত করতে পারবে। এটা একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ যা সেই ব্যাংকের নিয়মিত কার্যক্রম এবং সেবা গুণগতভাবে ব্যাখ্যা করে।

সাম্প্রতিক কিছু সপ্তাহের মধ্যে, পেটিএমের নাম অনেকবার সংবাদে উল্লেখ হয়েছে, যেটির পেছনের কারণ হলো তার নিজস্ব ব্যাঙ্কিং প্ল্যাটফর্ম, পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্ক ব্যবস্থা। এই বেসরকারি ব্যাঙ্কিং প্রতিষ্ঠানের উপর নিয়ম লঙ্ঘনের অভিযোগে, ভারতীয় রিজার্ভ ব্যাংক (RBI), যা পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্কের ব্যবস্থাপনা নিয়ন্ত্রণ করে, বেশিরভাগ ব্যবহারকারীদের উপর একটি সারিদিশের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। এটির ফলে, গ্রাহকরা সম্ভাব্যতঃ অসুবিধার মুখোমুখি হতে পারেন।

তবে, গত কিছু সপ্তাহ ধরের মধ্যে পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্ক এবং তার গ্রাহকবৃন্দ উভয়েই সময়মত সুরক্ষা পাচ্ছে। যদিও এই বিষয়ে RBI-এর অবরোধের কোনো তথ্য প্রকাশ হয়নি, কিন্তু দেশের প্রধান ব্যাংকিং প্রতিষ্ঠান, RBI, পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্কের ডিপোজিট এবং লেনদেন সম্পর্কে কাজের সময়সীমা ২৯শে ফেব্রুয়ারি থেকে ১৫ই মার্চ পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

RBI কী বলেছে সেটা সঠিকভাবে বুঝানো যাক।

রিজার্ভ ব্যাঙ্কের নিষেধাজ্ঞা জারির সময়ে, এই মাসের শেষের অর্থাৎ ২৯শে ফেব্রুয়ারি থেকে, পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্ক পরিষেবা বন্ধ হবার প্রস্তাবনা উল্লেখ করেছিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক। তবে, সর্বশেষ সার্কুলারে, ব্যাঙ্কিং প্রতিষ্ঠানটি পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্কের কাছে ডিপোজিট এবং ট্রান্সাকশন সেরে ফেলার শেষ সময়কে ১৫ই মার্চ, ২০২৪ তারিখ ঘোষণা করেছে। ব্যাঙ্কিং রেগুলেশন অ্যাক্ট, ১৯৪৯-এর ৩৫এ ধারার আওতায়, জনসাধারণের বিকল্প ব্যবস্থার স্বার্থে আরবিআই গত ৩১শে জানুয়ারিতে প্রকাশিত নির্দেশে সংশোধন সুপরিসংখ্যান করেছে। এই অতিরিক্ত ১৫ দিনের মধ্যে পেটিএম পেমেন্ট ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের অ্যাকাউন্টে ডিপোজিট, ক্রেডিট ট্রান্সাকশন এবং টপ-আপ সহ যেকোনো প্রয়োজনীয় কার্য সম্পাদনের জন্য সুযোগ প্রদান করা হবে।

এই নির্দেশিকা অনুসারে পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্কের গ্রাহকদের উপর কোনো বাৎসরিক প্রভাব নাও হবে, যেমন তাদের পূর্বের পরিচয় ও ব্যবহৃত প্রক্রিয়া সংশোধিত হবে না। এছাড়া, এই ধারনার আওতায় তাদের নিরাপত্তা এবং প্রক্রিয়া সুরক্ষিত থাকবে। তাদের পেটিএম পেমেন্টস ব্যাঙ্কে আকাউন্টে আর্থিক সঞ্চয় এবং সহজেই অন্য প্রয়োজনীয় লেনদেনের সুযোগ থাকবে। সরকারের প্রবাবস্থা এবং ব্যবসায়ের সঙ্গে পেট

কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক অত্যন্ত স্পষ্টভাবে ঘোষণা করেছে যে, পরবর্তী ১৫ই মার্চ তারিখ থেকে তাদের গ্রাহকরা কোনও পেটিএম পেমেন্ট, লেনদেন, প্রিপেইড ইন্সট্রুমেন্ট, ওয়ালেট, ফাস্ট্যাগ (FASTag), জাতীয় সার্বভৌম মোবাইলিটি কার্ড ইত্যাদি সুবিধা ব্যবহার করতে পারবেননা। এছাড়াও, কোনও রকমের ডিপোজিট বা ক্রেডিট সুবিধা উপলব্ধ থাকবে না। টপ-আপের অনুমতি ও অন্যান্য সেবাগুলি প্রদানের কোনও ব্যবধান থাকবে না।

এই সময়ে, ব্যাঙ্ক গ্রাহকদের পেমেন্ট ও লেনদেনের জন্য নতুন পদক্ষেপ নিয়েছে যাতে পুনঃনির্মিত হতে সময় লাগে না। এটি ব্যাঙ্কের সার্ভিস প্রদানের মান এবং কাস্টমার সন্তুষ্টিকর বজায় রাখার লক্ষ্যে নেওয়া হয়েছে। এ প্রস্তুতিতে ব্যাঙ্ক গ্রাহকদের সঠিক তথ্য প্রদান করা হবে এবং প্রয়োজনে যোগাযোগ করা হবে তাদের সাথে।

এখন আমরা কী করব?

এই মুহূর্তে সেভিংস ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট, কারেন্ট অ্যাকাউন্ট, প্রিপেইড ইন্সট্রুমেন্ট, ফাস্ট্যাগ, ন্যাশনাল জেনারেল মোবিলিটি কার্ড ইত্যাদির কাস্টমাররা তাদের পেটিএম পেমেন্ট ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে উপলব্ধ বর্তমান ব্যালেন্স কোনো সীমাবদ্ধতা ছাড়াই তুলতে বা ব্যবহার করতে পারবেন। পেটিএমের মাধ্যমে বিভিন্ন সুবিধা উপভোগ করা যাবে, যেমন বিদ্যালয় ফি পরিশোধ, বিমা করা, বিল পরিশোধ, ইন্টারনেট শপিং এবং বিভিন্ন অনলাইন প্রতিষ্ঠানের পেমেন্ট সম্পন্ন করা। এই ব্যবস্থা সামর্থ্য দেয় প্রযুক্তিগত উন্নতির মাধ্যমে মানুষের জীবনধারার সহজীকরণে।

আর এক্ষেত্রে সময় বাড়লেও, যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব কাজ সেরে ফেলতে হবে। ব্যস্ত জীবনযাত্রায় মানুষের জন্য পেটিএমের এই সুবিধা একটি অপরিহার্য বিষয়। এটি তাদেরকে সময় সাশ্রয়ীভাবে ব্যবহার করার সুযোগ দেয়, যাতে তারা আরো বেশি কাজ সম্পন্ন করতে পারেন এবং জীবনে সুখ-সান্ত্রাসে থাকতে পারেন।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

আরবিআই পেমেন্টস ব্যাংক তাদের কাস্টমারদের সুযোগ দেওয়ার জন্য এই সময়সীমা বাড়ানোর নির্দেশ দিয়েছে, যাতে তারা প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারেন।

পেটিএম পেমেন্টস ব্যাংকের কাস্টমারদের এই সময়সীমা বাড়ানোর পরেও তাদের অ্যাকাউন্ট এবং সেবা সম্পর্কে কোনো সমস্যা হবে না। তারা প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন এবং নতুন সময়সীমা প্রযোজ্য হওয়ার পর পুনরায় সেবা সম্পর্কে সম্পূর্ণ উপভোগ করতে পারবেন।

পেটিএম পেমেন্টস ব্যাংকের কাস্টমাররা বন্ধের সময় তাদের লেনদেনে কোনো ব্যাপারে ঝামেলা নেবেন না, কারণ এই সময়সীমা বাড়ানো হয়েছে তাদের সুযোগ সুবিধা মতো করে।

এই সময়সীমা বাড়ানোর মাধ্যমে পেটিএম পেমেন্টস ব্যাংকের কাস্টমাররা তাদের অ্যাকাউন্টে সহজেই প্রযোজনীয় ব্যবস্থা নিতে পারবেন এবং সুযোগ সুবিধা উপভোগ করতে পারবেন প্রতিবেদন সহ অন্যান্য সেবা সম্পর্কে।


উপসংহার

সমূদ্র থেকে বাতাসে পারোয়া বসন্তের আগমন সূচনা করে রিজার্ভ ব্যাংক অফ ইন্ডিয়া (আরবিআই) ব্যাঙ্কের পেটিএম পেমেন্টস ব্যাংকের বন্ধের সময়সীমা বাড়ালে সমস্ত পেটিএম পেমেন্টস ব্যাংক ব্যবহারকারীর জন্য একটি আশা প্রকাশ করে। এই নতুন সময়সীমা প্রায় দুই মাসের জন্য অপেক্ষার সময় প্রদান করে, যা সেবা সাধারণ রুটিন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য প্রয়োজনীয় করে সেটা নিশ্চিত করে। এই সময় পর্যন্ত, পেটিএম পেমেন্টস ব্যাংক ব্যবহারকারীরা নিরাপদে এবং সহজেই তাদের অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করতে থাকতে পারবেন, যেটি তাদের জীবনযাপনের সহায়ক হবে এবং নিরাপদ পেমেন্ট অপশন প্রয়োজনীয় সাথে অনুপস্থিতির সময়ে তাদের সহায়ক হবে।

Leave a Comment