কথা রাখলো বিদেশি সংস্থা Qualcomm, অতিসস্তায় 5G ফোন আনতে নতুন চিপ সেন্টার খুললো এদেশে

Jacksons

Qualcomm

কোয়ালকম (Qualcomm) জানিয়েছে তারা তাদের কর্মসূচির মাধ্যমে ভারত সরকারের ৬টি প্রযুক্তি জগতের উন্নতমার্গে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এই ধারণার আলোকে, বৃহস্পতিবার প্রকাশিত একটি সংবাদতালিকা উল্লেখ করে, কোয়ালকমের নতুন চিপ ডিজাইন সেন্টার ভারতের চেন্নায়ে উদ্বোধন করা হয়েছে। এই সেন্টারের উদ্বোধনে মোট ১৭,৭২৭ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে, যা ভারতের প্রযুক্তি উন্নতির জন্য একটি মুখ্যমূল্যের ধারণা প্রতিফলিত করতে পারে। এই প্রযুক্তিগত আদায়ের মাধ্যমে ভারতের প্রযুক্তি খাতে একটি নতুন দিক নেওয়ার উদ্দেশ্যে কোয়ালকম এই ধাপটি নেয়েছে।

এই নতুন চিপ ডিজাইন সেন্টারের মাধ্যমে কোয়ালকম পুরোপুরি ওয়ায়ারলেস কানেক্টিভিটি সলিউশন এবং ওয়াইফাই টেকনোলজির উন্নতি এনে দিতে পারে। এই উন্নতির মাধ্যমে ভারতের প্রযুক্তি মানে একটি পরিবর্তনশীল এলাকায় পরিণত হতে পারে। এছাড়াও, এই চিপ ডিজাইন সেন্টার একটি গুরুত্বপূর্ণ উন্নতি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হতে পারে যেটি ভারতের তার প্রযুক্তিগত প্রবৃদ্ধি কে সমৃদ্ধ করতে সাহায্য করতে পারে।

এই উন্নতির মাধ্যমে ভারতের প্রযুক্তিগত প্রবৃদ্ধি সহজলভ্য এবং অন্যান্য বিশ্বমানের সাথে মিল খুঁজে পেতে পারে। এটি ভারতের প্রযুক্তি খাতে একটি নতুন দিক নেওয়ার উদ্দেশ্যে একটি মুখ্যমূল্যের ধারণা প্রতিফলিত করতে পারে। এ সমস্ত উন্নতির ফলে ভারতের প্রযুক্তি বিনিয়োগ বা তাদের প্রযুক্তিগত অবলম্বন গতিপ্রকৃতি বেশি হতে পারে।

নতুন চিপ ডিজাইন সেন্টারে ১৬০০ দক্ষ পেশাদার প্রযুক্তিবিদদের চাকরি সৃষ্টি হবে। এটির মাধ্যমে সেমি কন্ডাক্টর ডিজাইনের জন্য নতুন দ্বার উন্মুক্ত হবে এবং দেশীয় ডিজাইন ইকোসিস্টেমের বৃদ্ধির সুযোগ বেড়ে উঠবে। এছাড়াও, সরকারের ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ স্বপ্নের সাথে সামঞ্জস্য রেখে এই সেন্টার কর্মকর্তাদের সঠিক দিকনির্দেশনা দেওয়া হবে।

Qualcomm জানিয়েছে তারা তাদের কর্মসূচির মাধ্যমে ভারত সরকারের 6G গবেষণাকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। এই প্রযুক্তি সেন্টারটির স্থাপনের সময় কেন্দ্রীয় যোগাযোগ, ইলেকট্রনিক্স এবং তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব বিবেচনা করেন যে, ভারতের প্রযুক্তিগত দক্ষতা ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে। উদ্ভাবনেও ভারত বিশ্বনেতা হিসেবে নিজের অবদান রাখছে।

এখন আমরা Qualcomm-এর সাথে এই অংশীদারিত্ব করতে পেরে আনন্দিত। এটি ডিজিটাল ভারতের স্বপ্ন দ্রুত বাস্তবায়িত হওয়ার জন্য একটি মুখ্য ভূমিকা পালন করবে। আর এর পর একসাথে আমরা লক্ষ লক্ষ ভারতীয়কে 5G কানেকশনের মাধ্যমে সংযুক্ত রাখতে পারব।

কোয়ালাকম টেকনোলজিস্টের গ্রুপ জেনারেল ম্যানেজার রাহুল প্যাটেল বলেছেন যে, নতুন ডিজাইন সেন্টার একটি প্রাসঙ্গিক প্লাটফর্ম হিসেবে কাজ করবে, যেটি নিশ্চিত করবে একাধিক কর্মসংস্থানের সৃষ্টি এবং বাস্তবায়নের সুযোগ। এটি শুধুমাত্র প্রযুক্তির বিকাশে যোগদান করবে না, বরং বিশ্বের সাথে যুক্তি সাধার্থ্যের মাধ্যমে তার ভবিষ্যৎ আরও উজ্জ্বল করবে।

এছাড়াও, রাহুল প্যাটেল প্রকাশ করেছেন যে, এই নতুন সেন্টার 6G সেলুলার প্রযুক্তির উন্নয়ন ও গবেষণা কার্যক্রমে অবদান রাখবে। এটি গ্রাহকদের জন্য নতুন এবং উন্নত পণ্য এবং সেবা উন্নত করতে সক্ষম হবে, এবং সাথে সাথে বাজারের মান ও মানুষের জীবনে অবদান রাখবে।

সাথে সাথে, কোয়ালাকমের ইন্ডিয়ান অংশে, ইন্ডিয়ান মোবাইল কংগ্রেস ২০২৩-এর সময়, প্রেসিডেন্ট স্যাভি সইনের মাধ্যমে বিশেষভাবে 5G চিপ চালু করার পরিকল্পনা ঘোষণা করা হয়েছে। এটি ভারতীয় বাজারে স্মার্টফোনের উন্নতির একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হবে, যা বাংলাদেশের প্রযুক্তিভিত্তিক উন্নতির মাধ্যমে আরও সমৃদ্ধ হবে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

গ্যারেনা ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স রিডিম কোড ব্যবহার করতে আপনাকে প্রথমে অফিসিয়াল রিডেমশন সাইটে যেতে হবে এবং সেখানে কোড অনুযায়ী আবার লগ-ইন করতে হবে।

হ্যাঁ, রিডিম কোড থেকে আপনি ডায়মন্ড, কাস্টমাইজেশন আইটেমসহ অন্যান্য সরঞ্জাম পেতে পারেন।

আমাদের অফিসিয়াল রিডেমশন সাইটে গ্যারেনা ফ্রি ফায়ার ম্যাক্স রিডিম কোড পেতে পারেন।

না, একটি রিডিম কোড একবার মাত্র একবার ব্যবহার করা যায়। এরপরে সংক্রান্ত অন্যান্য প্রয়োজনীয় নির্দেশনা মেনে চলা প্রয়োজন।

উপসংহার

এদেশে নতুন চিপ সেন্টারের খোলার সাথে সাথে বিদেশি প্রযুক্তি সংস্থা Qualcomm এর মাধ্যমে অতিসস্তায় 5G ফোন আনা হবে। এটি স্থানীয় প্রযুক্তি উন্নতির জন্য একটি প্রাসঙ্গিক ধাপ। এই উন্নতি যে বেশি তাড়াতাড়ি তাদের প্রযুক্তিগত সুযোগ পরিবর্তন করতে সহায়তা করবে এবং দেশের সাথে তাদের প্রতিশ্রুতি সম্পন্ন করবে। এটি নিশ্চিত করে তুলবে এই দেশটির প্রযুক্তিগত আত্মনির্ভরতা এবং তার অগ্রগতির জন্য অনেক সুযোগ প্রদান করবে। এই প্রযুক্তি উন্নতি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে দেশের সম্প্রসারণ ও প্রগতিতে অবদান রাখবে, এবং এর ফলে বাংলাদেশ প্রযুক্তিগত মহাশক্তির অবতারও পেতে পারে।

Leave a Comment