হ্যাকাররা কাঁদবে এবং ধমক পাবে! Android 15 এসে আছে অত্যন্ত দুর্ভেদ্য সিকিউরিটি ফিচারসহ।

Jacksons

Android 15

অ্যান্ড্রয়েডের নতুন সংস্করণে ব্যবহারকারীদের ডেটা সুরক্ষার জন্য প্রযুক্তিগত উপায়ে ত্রিভাবে নতুন সুরক্ষা অংশ সংযোজন করা হবে। অ্যান্ড্রয়েড ১৫-এ টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশনের ক্ষেত্রে সহজতর প্রয়োজনীয় অনুমতি এবং নোটিফিকেশন প্রয়োজন অনুমতি নেওয়া হবে, যা ডেটা সুরক্ষার উচ্চ মান নিশ্চিত করবে।

গুগল প্রযুক্তিবিদের প্রথম কদম হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড ১৫ এর ডেভেলপার প্রিভিউ প্রকাশ করেছে। এই নতুন সংস্করণে প্রধানত সুরক্ষা উন্নতি এবং ব্যবহারকারীদের গোপনীয়তা সংরক্ষণের জন্য নতুন কাঠামো সংযোজন করা হবে। এছাড়াও, নতুন অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম সম্পর্কে বিশেষ তথ্য এই প্রিভিউতে সার্ভিস করা হবে।

এই প্রযুক্তিগত উন্নতি মোবাইল প্রযুক্তির জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ হিসেবে প্রকাশিত হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের ডেটা ও গোপনীয়তা সুরক্ষার প্রাথমিক অনুপ্রেরণা হিসেবে দেখা যাচ্ছে, এবং এটি বিশেষভাবে ব্যবহারকারীদের মাঝে উৎসাহ তৈরি করছে যেন তারা সুরক্ষিতভাবে তাদের ডেটা ব্যবহার করতে পারেন।

রিপোর্ট অনুযায়ী, অ্যান্ড্রয়েডের নতুন সংস্করণে ব্যবহারকারীদের স্পর্শকাতর ডেটা তিনভাবে আরও সুরক্ষিত রাখা হবে। অ্যান্ড্রয়েড ১৫-এ টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন সংক্রান্ত নোটিফিকেশন আরও সুরক্ষিত রাখা হবে, ফলে কোনও ক্ষতিকর অ্যাপ বা ম্যালওয়্যারের মাধ্যমে ডেটা চুরি বা অ্যাক্সেস করা যাবে না। এটা ব্যবহারকারীদের ডেটা সুরক্ষা বাড়াতে সাহায্য করবে এবং তাদের অনুভব সুরক্ষিত করবে অনলাইনে সার্ভিস বা অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের সময়।

অ্যান্ড্রয়েড অথোরিটির সঙ্গে যুক্ত মিশাল রহমান জানিয়েছেন, আগের সফটওয়্যার সংস্করণগুলির তুলনায় অ্যান্ড্রয়েড ১৫-এ উন্নত নিরাপত্তা ব্যবস্থা থাকবে। এতদিন টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশনের বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই ইমেইল, সোশ্যাল মিডিয়া সার্ভিস বা ব্যাংকিং অ্যাপকে এসএমএসের মাধ্যমে ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ড (ওটিপি) পাঠাতে হয়। এই নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থা ব্যবহারকারীদের ডেটা সুরক্ষা সংক্রান্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ ধাপ ধরতে সাহায্য করবে।

এই নতুন সুরক্ষা ব্যবস্থার মাধ্যমে অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের অধিক নিরাপত্তা অনুভব করতে সাহায্য করবে এবং তাদের সম্প্রতি ব্যবহৃত সেবা ও অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে। এটি অ্যান্ড্রয়েড ব্যবহারকারীদের সম্প্রতির সাইবার নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জে একটি উত্তরমূলক পদক্ষেপ।

উদ্বেগের বিষয় হলো, যে কোডটি আমরা ব্যবহার করছি, সেটি যেকোনো ক্ষতিকর অ্যাপ বা ম্যালওয়্যার পড়ার ঝুঁকিতে পড়তে পারে। তবে, এই ধরনের ঝুঁকিটি এবারের অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণে স্পর্শকাতর নোটিফিকেশনের অ্যাক্সেসের জন্য প্রধানত প্রতিষ্ঠিত এবং গুগল ভেরিফাই করা অ্যাপগুলিতে মাত্র অনুমোদন দেওয়া হবে। অর্থাৎ, গুগল ভেরিফাই করা এবং নিরাপদ মনে হচ্ছে তাদের নির্দিষ্ট অ্যাপগুলি মাত্র এই বিশেষ সুবিধা ব্যবহার করতে পারবে।

সংস্করণের পরিবর্তনের সাথে সঙ্গে, এই নতুন সিকিউরিটি নীতির কারণে ব্যবহারকারীদের অভিজ্ঞতা সহজ হবে না। এখন তাদের প্রয়োজনীয় অ্যাক্সেস পাওয়ার জন্য প্রথমে অ্যাপ প্রদাতার অনুমতি অনুরোধ করতে হবে, এবং এই অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করা হলে ব্যবহারকারীরা ঐ অ্যাপের নোটিফিকেশনে প্রবেশ করতে অস্বীকার হবে। এটি নিজেই ব্যবহারকারীদের নিরাপত্তার জন্য একটি পরীক্ষামূলক পদক্ষেপ।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন হলো একটি প্রযুক্তি যেখানে ব্যবহারকারীকে দুটি পরের ধাপে যাচাই করতে হয়, সাধারণত পাসওয়ার্ড এবং একটি বায়োমেট্রিক ডেটা বা স্মার্টফোনের কোড ইত্যাদির মাধ্যমে।

ডেটা এনক্রিপশন হলো একটি প্রযুক্তি যেখানে ডেটা গোপনীয়তা সংরক্ষণ করার জন্য তা কোডিং করা হয় যাতে কেবল অনুমিত ব্যক্তিদের জন্য সেই ডেটা অ্যাক্সেস করা যায়।

প্রাইভেসি ফিচার ব্যবহারকারীদের সংক্রান্ত তথ্য এবং ডেটার গোপনীয়তা সংরক্ষণ করে এবং অনুমিত অ্যাক্সেসের বিরুদ্ধে সুরক্ষা প্রদান করে।

অ্যাপ সিকিউরিটি ফিচার অ্যাপ্লিকেশনগুলির নিরাপত্তা বাড়াতে সাহায্য করে এবং কোনও অস্থায়ী অথবা প্রাপ্তির প্রতিটি অ্যাপের সুরক্ষা নিশ্চিত করে।

উপসংহার

সমগ্রভাবে বিবেচনা করা যায়, অ্যান্ড্রয়েড ১৫-এ যুক্ত হওয়া সিকিউরিটি ফিচারগুলি হ্যাকারদের প্রতিরোধে একটি বিপুল প্রতিষ্ঠান। টু-ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন, ডেটা এনক্রিপশন, প্রাইভেসি ফিচার, এবং অ্যাপ সিকিউরিটি ফিচারের সংযোজন মোবাইল ডিভাইসের নিরাপত্তা এবং ব্যবহারকারীর গোপনীয়তা সংরক্ষণে একাধিক পায়ে মান যোগাযোগ করে। এই নতুন সিকিউরিটি ফিচারগুলি ব্যবহারকারীদের সম্প্রতির সাইবার নিরাপত্তা চ্যালেঞ্জে একটি মহান ধাপ প্রদান করে, যার ফলে ব্যবহারকারীরা তাদের ডিভাইস এবং তথ্যের সাথে আরও নিরাপদভাবে ইন্টারঅ্যাক্ট করতে পারবেন। পরিণতিতে, হ্যাকাররা বাপ বাপ বলে পালাতে বাধা প্রতিরোধে এই নতুন সিকিউরিটি ফিচারগুলি মানবকেন্দ্রিক প্রতিষ্ঠান অ্যান্ড্রয়েডের একটি অগ্রগতির ধাপ প্রতিষ্ঠা করে।

Leave a Comment