Smartphones ব্যাটারি নিম্নক্ষণেই পূর্ণ হবে! ১২০ওয়াট ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তিযুক্ত সেরা স্মার্টফোন গুলি, যা সহজেই ২০০এমপি ক্যামেরার সাথে পাওয়া যায়!

Jacksons

Updated on:

Smartphones

Smartphones বেশিরভাগ মানুষের জীবন এখন অস্থির এবং অত্যন্ত ব্যস্ত। স্মার্টফোন আমাদের জীবনে একটি অপরিসীম অংশ হিসাবে গড়ে তুলেছে, যা আমাদেরকে প্রত্যেক সময় যোগাযোগে থাকতে সাহায্য করে। প্রতিদিনের ব্যস্ত জীবনে ফোনের চার্জ থাকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, যেটি স্মার্টফোন উপভোগ করতে সহায়ক করে। এই সময়ে, ব্যস্ত সময়ে ফোনের ব্যাটারি চার্জ রাখতে সাহায্য করে ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তির সমর্থন সহ বিভিন্ন স্মার্টফোন উপলব্ধ হয়েছে।

এই দিকে গবেষণা এবং উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে, বর্তমানে বাজারে অনেক স্মার্টফোনে দ্রুত চার্জিং সুবিধা উপলব্ধ রয়েছে। আপনি যদি ফাস্ট চার্জিং সুবিধাযুক্ত একটি স্মার্টফোন কেনার পরিকল্পনা করছেন, তবে অনেক প্রযুক্তিপ্রিয় ব্রান্ডের সাথে অভিজ্ঞতা অর্জন করতে পারেন। আপনি ১৫ মিনিটেই চার্জ করতে পারবেন ১০০% পর্যন্ত আপনার ফোন যেগুলি বিশেষভাবে ১২০W ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তির সাথে সম্পন্ন আছে, এবং তাদের মধ্যে সেরা ক্যামেরা এবং ডিসপ্লে সেটআপ পাওয়া যাবে।

চার্জ করতে সময় নেবে না, এই সেরা পাঁচটি ফোন আধুনিক জীবনের জন্য।

শাওমি 11i হাইপারচার্জ 5জি: এই ফোনের মূল বৈশিষ্ট্য হলো ৮ জিবি এবং ১২৮ জিবি স্টোরেজ, যা অ্যামাজন ইন্ডিয়াতে (Amazon India) ২৬,৯০০ টাকা মূল্যে পাওয়া যায়।

এই ফোনে একটি ৪,৫০০ এমএএইচ ব্যাটারি রয়েছে যা দাবি করে কোম্পানি, ১৫ মিনিটে শূন্য থেকে ১০০ শতাংশ চার্জ হয়ে যাবে। এই ফোনের ফিচার একটি ১২০ হার্টজ ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুলএইচডি+ অ্যামোলেড ডট ডিসপ্লে, মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯২০ প্রসেসর এবং ১০৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা সেটআপ।

ফোনে ১২০ হার্টজ ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুলএইচডি+ অ্যামোলেড ডট ডিসপ্লে সহ, এছাড়াও এটি মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯২০ প্রসেসর দ্বারা প্রস্তুত হয়েছে এবং এর সাথে একটি ১০৮ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা সেটআপ আছে। এই নতুন ফোনের মূল বৈশিষ্ট্যগুলির মধ্যে ফাস্ট চার্জিং এবং ক্যামেরা সেটআপের উন্নত প্রযুক্তির উল্লেখযোগ্য।

Redmi Note 13 Pro+ 5G এখন ফ্লিপকার্টে উপলব্ধ। এই ফোনের ৮ জিবি এবং ২৫৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের মূল্য হল ৩১,৯৯৯ টাকা।

এই ডিভাইসে কোম্পানি ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সাথে ১২০ ওয়াট হাইপার চার্জিং সাপোর্ট প্রদান করে, যা ফোনের ব্যাটারি মাত্র ১৯ মিনিটে পুরো ১০০ শতাংশ চার্জ হয়ে যাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করে। এতে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ ফিচার হলো কর্নিং গরিলা গ্লাস ভিক্টাস প্রোটেকশন যুক্ত ৬.৬৭ ইঞ্চি কার্ভড অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যা উচ্চ গ্রেডের সুরক্ষা ও স্পর্শের স্বাধীনতা সম্পন্ন করে। ফোনে মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৭২০০ আল্ট্রা প্রসেসর, ১২ জিবি পর্যন্ত র‍্যাম, এবং ৫১২ জিবি পর্যন্ত ইউএফএস স্টোরেজ প্রদান করা হয়েছে, এবং ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপে ২০০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা সহ অগ্রগামী ফোনটির সাথে আসছে।

iQOO Neo 7 Pro 5G এই ফোনটি অ্যামাজনে ৩৩,৯৯৯ টাকায় পেতে পারবেন।

আগামী ফোনটি নিশ্চিতভাবে আপনার চার্জিং অভিজ্ঞতা উন্নত করবে। এটি ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে যাতে আপনি অল্প সময়েই ব্যাটারিতে পুনরায় প্রায় পূর্ণতা লাভ করতে পারেন। এটি সহজেই ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির সঙ্গে সম্পর্কিত, যা মাত্র ৮ মিনিটে আপনার ডিভাইসের ব্যাটারির প্রায় ৫০% চার্জ করতে পারে।

আমার ফোনটি অবশ্যই সব প্রযুক্তিতে আপনাকে সুবিধা অনুভব করার জন্য নিবন্ধনগ্রহণ করেছে। এটি গ্লাস ডিজাইনের সাথে একটি অত্যন্ত আকর্ষণীয় ১২০ হার্টজ অ্যামোলেড ডিসপ্লে, স্ন্যাপড্রাগন ৮+ জেন ১ গেমিং প্রসেসর এবং ৫০ মেগাপিক্সেল ওআইএস (OIS) ফ্ল্যাগশিপ ক্যামেরার সাথে আপনাকে সার্বিক অভিজ্ঞতা অনুভব করার জন্য প্রস্তুত রয়েছে।

Vivo X90: এর ৮ জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজ অপশনটির মূল্য ফ্লিপকার্টে ৪৮,৫০০ টাকা থেকে শুরু হচ্ছে।

এই ফোনটির সর্বোচ্চ বৈশিষ্ট্য হলো ৪,৮১০ এমএএইচ ব্যাটারি এবং ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট। এটা অত্যাধুনিক ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ ৬.৭৮ ইঞ্চি ফুল এইচডি+ ডিসপ্লে, যা উচ্চ গুণসংখ্যার ভিউয়ারগুলির জন্য অপ্টিমাইজ করে। এছাড়াও, এটি প্রযুক্তিগত নতুনত্বের সাথে আসে, যেমন মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৯২০০ প্রসেসর এবং প্রিমিয়াম ইমেজ কোয়ালিটির জন্য ৫০ মেগাপিক্সেলের ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ। আর সেলফি আফিসারদের জন্য এটি সেলফি ক্যামেরায় ৩২ মেগাপিক্সেলের বিশেষ অফার দিচ্ছে।

এই নতুন ফোনের প্রায় সম্পূর্ণ অল্পাংশ ব্যবহার সম্পর্কে তথ্য দেওয়া হয়েছে, যা আমাদের সামগ্রিক ব্যবহারকে আরও সহজ ও সুবিধাজনক করবে। এই ফোনের ৫০ মেগাপিক্সেল ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ প্রথমে উল্লেখযোগ্য, যা ব্যবহারকারীদের অবসরে অবস্থান প্রয়াপ্ত ছবি তৈরি করে। সেলফি ক্যামেরার ৩২ মেগাপিক্সেল ক্যাপাসিটি যুক্তিযুক্তভাবে স্বীকৃতি পায় এবং নিজের সম্পর্কে সম্মানজনক ছবি তুলতে সহায়ক হতে পারে। এই ফোনের প্রাসঙ্গিক বৈশিষ্ট্যগুলি একটি উচ্চ স্তরের ব্যবহারিক অভিজ্ঞতা নিশ্চিত করে এবং ব্যবহারকারীদের কাজ সহায়ক করে।

iQOO 12 5G: এই স্মার্টফোনটির বৈশিষ্ট্য হলো ১৬ জিবি র‍্যাম এবং ৫১২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ। এই ধরনের প্রযুক্তিগত যন্ত্রটি অ্যামাজন ইন্ডিয়াতে ৫৭,৯৯৯ টাকায় উপলব্ধ।

এই ফোনটি এখন ১২০ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এর সাথে সহজেই সম্পূর্ণ চার্জ হয়ে যাবে এক দ্বার নিষ্ক্রিয় সময়ে। যেহেতু এটি একটি পরিবেশমুক্ত সংস্করণ, তাই এটির ব্যবহারকারীদের জন্য একটি আকর্ষণীয় অপশন হতে পারে। এটিতে আরও একটি আকর্ষণীয় ফিচার হলো ১৪৪ হার্টজ রিফ্রেশ রেটে অত্যন্ত স্পষ্ট এলটিপিও অ্যামোলেড ডিসপ্লে, যা দেখার অভিজ্ঞতা সম্পূর্ণভাবে পরিবর্তে দেয়।

ফোনটিতে সুপার কম্পিউটিং চিপ কিউ১ (Super Computing chip Q1) এবং ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা সহ ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ সহিত বিভিন্ন অভিজ্ঞতা উপভোগ করা যাবে। এই মোবাইলে সামগ্রিকভাবে উন্নত ক্যামেরা সেটআপ ব্যবহারকারীদের ছবি তুলতে এবং ভিডিও রেকর্ড করতে সাহায্য করবে। এছাড়াও, এই ফোনে অনেক অন্যান্য উন্নত বৈশিষ্ট্য সম্মিলিত আছে যা ব্যবহারকারীদের কাজ ও মনোরঞ্জনে অধিক সুবিধা সরবরাহ করবে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

এই টেকনোলজির মাধ্যমে মোবাইল ডিভাইসের ব্যাটারি অত্যন্ত দ্রুততারে চার্জ হয়, যা ব্যবহারকারীদের সময় সাশ্রয়ী করে দেয়।

এই প্রযুক্তি ব্যবহার করে যখন আপনি মোবাইল ডিভাইসের চার্জিং প্রসেস শুরু করেন, তখন ব্যাটারি এক্সপ্রেস চার্জিং মোডে যায় এবং খুব শীঘ্রই ব্যাটারি পূর্ণ চার্জে পৌঁছায়।

ব্যাটারি ফুল হবে নিমেষের মানে হলো, মোবাইলের ব্যাটারি পূর্ণতা অর্জন করার জন্য মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যেই ব্যাটারি চার্জ হবে।

120W ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি ব্যবহার করে ব্যাটারির দ্রুত চার্জিং সুবিধা সরবরাহ করে যাতে ব্যবহারকারীরা অন্ধকারের মধ্যে মোবাইল চার্জ করতে পারেন। এই প্রযুক্তির সাথে সম্পূর্ণ চার্জের জন্য প্রয়োজনীয় সময় খুব কম।

উপসংহার

সমগ্র আলোচনার আলোকে, “ব্যাটারি ফুল হবে নিমেষে!” এবং 120W ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তিযুক্ত সেরা Smartphone-এর উল্লেখ একটি নতুন করে মোবাইল প্রযুক্তিতে এক ধারণা উজ্জ্বল করেছে। এই উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা মোবাইল ব্যবহারের সময় কমতে পারে এবং দ্রুত চার্জিং ক্যাপাবিলিটি উপভোগ করতে পারেন। এছাড়াও, 200MP ক্যামেরার মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা অবিশ্বাস্য ছবি তুলতে পারেন এবং তাদের অভিজ্ঞতা তৈরি করতে সহায়ক হয়। এই সমস্ত বৈশিষ্ট্য মিলিত করে, এই নতুন প্রযুক্তিগুলি বাজারে এক নতুন পর্ব উল্লেখ করতে পারে, যা মোবাইল প্রযুক্তিতে নতুন এক অধ্যায়ের উদ্ভাবন করে।

Leave a Comment