অন্যান্য ব্র্যান্ডদের টেক্কা দিয়ে সর্বোচ্চ র‍্যামের কার্ভড স্মার্টফোন নিয়ে হাজির হল Realme

Jacksons

Realme

Realme 12 Pro সিরিজটি যাত্রা শুরু করেছিল জানুয়ারিতে, যা ভারতে উদ্বোধন করা হয়েছিল। এখন সংস্থার তরফে এদেশে এদেশে Realme 12 Pro-এর এক নতুন র‍্যাম এবং স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্ট প্রকাশিত হয়েছে। প্রথমে, ফোনটি ৮ জিবি র‍্যাম + ১২৮ জিবি স্টোরেজ এবং ৮ জিবি র‍্যাম + ২৫৬ জিবি ভ্যারিয়েন্টে উপলব্ধ ছিল। নতুন সংস্করণটি উচ্চতর র‍্যাম অফার করে এবং কোম্পানি ঘোষণা করেছে যে এটি একটি কার্ভড ফোনের ক্ষেত্রে সর্বাধিক র‍্যাম প্রদান করবে। নতুন মডেলটি সেই সমস্ত গ্রাহকদের জন্য সুবিধাজনক, যারা স্মার্টফোনে বিভিন্ন অ্যাপ চালানোর জন্য অধিক র‍্যামের প্রয়োজন পেতে পারে। এটি গ্রাহকদের জন্য আকর্ষণীয় যারা একটি প্রফেশনাল এবং ভিড়ম্বনামূলক ফোন খুঁজছেন।

Realme 12 Pro-এর একটি নতুন ভ্যারিয়েন্ট প্রকাশিত হয়েছে।

রিয়েলমি ১২ প্রো ভারতে ১২ জিবি র‍্যাম এবং ২৫৬ জিবি স্টোরেজ সম্পন্ন ভ্যারিয়েন্টের পরিচিতি দিয়েছে। এই এককটি কার্ভড স্মার্টফোন হিসাবে উল্লেখযোগ্য এই সংস্করণে অবশ্যই সর্বোত্তম র‍্যাম প্রযুক্ত যুক্ত করা হয়েছে। প্রথম সেলের উদ্দেশ্যে রিয়েলমি ১২ প্রো ব্র্যান্ড নিশ্চিত করেছে, ৪,০০০ টাকার ব্যাঙ্ক ডিসকাউন্ট এবং ১২-মাসের নো-কস্ট ইএমআই অফারের সুবিধা প্রদান করবে। এই ধরনের সুবিধা অনুষ্ঠানে রিয়েলমি ১২ প্রো ব্যবহারকারীদের কাছে স্বাগতম জানানো হয়েছে।

তবে, র‍্যাম ও স্টোরেজের বৃদ্ধির অপরাধে, রিয়েলমি ১২ প্রো এই নতুন মডেলের অন্য বৈশিষ্ট্যগুলি আলাদা কিছু নয়। সেই সাথে, এটি একটি ৬.৭ ইঞ্চির কার্ভড-ওলেড (OLED) ডিসপ্লে উপকরণ করে, যা ফুলএইচডি+ রেজোলিউশন, ৯৫০ নিট পিক ব্রাইটনেস এবং ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সাপোর্ট করে। সুরক্ষা প্রেরণে, এটি একটি ইন-স্ক্রিন ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার সহ উন্নত সুরক্ষা সুবিধা উপলব্ধ করে।

রিয়েলমি ১২ প্রো নতুন মডেলের সাথে বিনিময়ে, গ্রাহকদের উপর অভিজ্ঞতা বেশি সুবিধা ও নতুনত্বের অনুভূতি উপলব্ধ করার লক্ষ্যে রয়েছে। বাজারে আসার পরে, এই মডেল আশা করা হয়, এক নতুন সেরা অভিজ্ঞতা সাহায্য করতে পারবে ব্যবহারকারীদের।

রিয়েলমি ১২ প্রো এর ফেক লেদারের ব্যাক প্যানেলে বৃত্তাকার ক্যামেরা মডিউল প্রস্তুত করা হয়েছে যেখানে একটি ৫০ মেগাপিক্সেল প্রাইমারি ক্যামেরা, ৩২ মেগাপিক্সেল টেলিফোটো লেন্স এবং ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রা-ওয়াইড-অ্যাঙ্গেল সেন্সর দ্বারা গঠিত ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ অবস্থান করে। এছাড়াও, ফোনটি Qualcomm Snapdragon 6 Gen 1 প্রসেসর দ্বারা পরিচালিত হয়েছে এবং এর সাথে প্রযুক্তিশীল ৫,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি যুক্ত করা হয়েছে, যা ৬৭ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে। এই ফোনের একটি অবশেষ বৈশিষ্ট্য হলো তার সুপার ফাস্ট চার্জিং ব্যাটারি পারফরম্যান্স।

এটি একটি আধুনিক ডিভাইস যেখানে প্রযুক্তিশীলতা এবং ব্যাটারি পারফরম্যান্স সমান্তরাল আছে। এটি একটি স্মার্টফোন যা ব্যবহারকারীদের সাথে সম্পৃক্ত করে এবং তাদের ব্যক্তিগত এবং পেশাগত কাজে সাহায্য করে। রিয়েলমি ১২ প্রো বাজারে একটি গুরুত্বপূর্ণ স্থান অধিকার করেছে যেখানে এর বৈশিষ্ট্যগুলি আসন্ন স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের প্রত্যাশা অনুযায়ী প্রস্তুত করা হয়েছে।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

Realme এর কার্ভড স্মার্টফোন প্রযুক্তিগত বিশেষজ্ঞতা এবং বেশি র‍্যামের মাধ্যমে ব্যবহারকারীদেরকে আরও ভালো পারফরমেন্স অফার করে।

না, Realme এর কার্ভড স্মার্টফোন বিশেষজ্ঞতা এবং সম্পর্কে তুলনামূলক মূল্যসহ আসে, তবে মূল্য সাপেক্ষে তাদের অন্যান্য ব্র্যান্ডের সাথে তুলনা করে উন্নতি দেখা যেতে পারে।

Realme এর কার্ভড স্মার্টফোন উন্নত মানের কার্ভড এবং সহজে অভিজ্ঞতা প্রদান করে, যা স্থায়ী এবং দীর্ঘদিন ব্যবহারের জন্য ইউজারদের আগ্রহবোধ করে।

এর কার্ভড স্মার্টফোনে প্রযুক্তিগত বিশেষজ্ঞতা রয়েছে যা গ্যামিং অভিজ্ঞতা সহায়ক করে, যাতে গেমারদের একটি নির্ভুল এবং অনির্দিষ্ট অভিজ্ঞতা অনুভব করতে পারে।

উপসংহার

অন্যান্য ব্র্যান্ডদের টেক্কা দিয়ে সর্বোচ্চ র‍্যামের কার্ভড স্মার্টফোন নিয়ে হাজির হল Realme। এই একটি মূল্যবান প্রস্তাব যে, অবশ্যই ব্যবহারকারীদের মধ্যে মূল্যবান অভিজ্ঞতা উপলব্ধ করার জন্য তাদের সঙ্গে একটি সম্পূর্ণ প্রতিশ্রুতি দেয়া। Realme ১২ প্রো এর প্রধান বৈশিষ্ট্যগুলি সমৃদ্ধ র‍্যাম এবং স্টোরেজ সহ অগ্রাধিকার ডিসপ্লে, সুরক্ষা, এবং অন্যান্য সুবিধায় আদর্শ উপভোগ করার জন্য প্রস্তুত। তারা এই সংস্করণের সাথে একটি নতুন উপলব্ধির চাইতে প্রাধান্য দিয়েছেন, যা আমাদের প্রযুক্তিগত অভিজ্ঞতা উন্নত করতে সাহায্য করবে। Realme ১২ প্রো এর এই নতুন মডেলটির মাধ্যমে, ব্যবহারকারীরা সর্বাধিক উন্নত সুবিধা এবং নতুনত্বের সঙ্গে অভিজ্ঞ হতে পারেন, এবং এটি তাদের প্রযুক্তিগত অভিজ্ঞতা উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে।

Leave a Comment