Shoaib Akhtar: তাঁর স্ত্রী ১৮ বছরের কিশোরী, এখন তিনশতব্দীতে আসার সময়ে তৃতীয় সন্তানের পিতা হিসেবে শোয়েব আখতার।

Jacksons

Updated on:

Shoaib Akhtar

১৯৯৭ সালে পাকিস্তানের হয়ে অভিষেক হয় শোয়েব আখতারের। তিনি ২০১১ বিশ্বকাপে শেষ ম্যাচ খেলেছিলেন।

শোয়েব আখতার, পাকিস্তানের সাবেক ক্রিকেটার, এখন তৃতীয়বারের মতো বাবা হয়েছেন। তার স্ত্রী রুবাব খান এক কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন। গতকাল ১ মার্চে ৪৮ বছর বয়সী শোয়েবের ঘরে একটি কন্যা সন্তানের জন্ম ঘটে। এই দম্পতির দুই ছেলে মোহাম্মদ মিকাইল আলী ও মোহাম্মদ মুজাদ্দাদ আলী ২০১৬ ও ২০১৯ সালে জন্মগ্রহণ করে। নিজের ইনস্টাগ্রামে অনুরাগীদের সঙ্গে সুখবর ভাগ করে নিয়েছেন আখতার। তিনি সকলকে ধন্যবাদ জানান এবং তার নবজাতক কন্যার জন্য তাদের দোয়া কামনা করেন।

ক্রিকেট ইতিহাসের দ্রুততম বলের রেকর্ডধারী শোয়েব আখতার তাঁর ইনস্টাগ্রাম পোস্টে উল্লেখ করেছেন, তাঁর খুশির সাথে এখন তার পরিবারে একটি নতুন সদস্যের যোগ। মার্চ ২০২৪ তার পরিবারে নূর আলী আখতারের আগমন ঘটে, যিনি ১৯ শাবান, ১৪৪৫ হিজরিতে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর সবাই আনন্দে ভরা এই সময়ে তারা আল্লাহর দানের জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

২০১৪ সালে, হরিপুরের একটি ব্যক্তিগত উদ্যোগে শোয়েব আখতার ও রুবাব খানের মধ্যে বিয়ে ঘটে। তখন আখতারের বয়স ছিল ৩৮ এবং রুবাবের বয়স ২০ বছর। তার পরিবারের বাবা-মা এই সম্প্রতির বিয়ের আয়োজন করেছিলেন। ২০১৬ সালের নভেম্বরে তাদের প্রথম সন্তান মিকাইলের জন্ম হয়। তিন বছর পর, ২০১৯ সালের জুলাই মাসে তাদের অন্য একটি সন্তান, মুজাদ্দাদের জন্ম ঘটে।

শোয়েব আখতার এই সুখদ সময়ে তার অনুভূতি প্রকাশ করেছেন যে তার পরিবার একটি নতুন সদস্যের আগমনে অত্যন্ত আনন্দিত এবং তারা আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করেছেন তার নতুন সন্তানের জন্য।

১৯৯৭ সালে পাকিস্তানের অভিষেক হয়ে শোয়েব আখতার। তার প্রথম ম্যাচের অস্ট্রেলিয়া বিপক্ষে তিনি অবশ্যই মনে করেন যে তার বলের গতি অত্যন্ত দ্রুত হতে হবে। এর পরেও তিনি যেমন ব্যাটসম্যানদের হৃদয় নিয়ে খেলেন, তেমনই তার বলও অসংখ্য দ্রুত। ২০১১ বিশ্বকাপে শেষ ম্যাচ খেলেছিলেন শোয়েব আখতার। সেই ম্যাচে তিনি তার প্রতিষ্ঠিত দক্ষতা দেখায় এবং তার দক্ষতা ও অদম্য উচ্চতা স্বীকার করা হয়।

৪৬টি টেস্ট, ১৬৩টি ওয়ানডে ও ১৫টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন শোয়েব আখতার। তার পেশাদার পাঠকের কাছে এক ব্যাক্তিগত রেকর্ড রয়েছে, যেখানে তিনি বিশ্বকাপে ১০০ মাইল প্রতি ঘণ্টায় বেগে বল করেন। তার ক্যারিয়ারে ১৭৮টি টেস্ট ম্যাচে ২৭৪টি, ১৬৩টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১৯টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে তার নামের পাশে রয়েছে ২৭৪টি ওয়ানডে ম্যাচে ১

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

শোয়েব আখতারের এখন তিনটি সন্তান আছে।

শোয়েব আখতার আটচল্লিশ-এ তার তৃতীয় সন্তানের বাবা হয়েছেন।

শোয়েব আখতারের ছেলেদের নাম হলঃ মোহাম্মদ মিকাইল আলী ও মোহাম্মদ মুজাদ্দাদ আলী।

শোয়েব আখতারের পরিবারে একটি নতুন সদস্যের স্বাগত হয়েছে, যিনি একটি কন্যা সন্তানের জন্ম দিয়েছেন।

উপসংহার

শোয়েব আখতারের জীবনের এই নতুন অধ্যায়ে প্রত্যাশা ও উৎসাহে ভরিয়ে নিয়েছে তার পরিবার ও অনুগামীরা। একেবারে অসাধারণ ব্যক্তিত্বের এই বিশেষ অনুভূতি নিয়ে তারা আল্লাহর দিকে শুক্রিয়া প্রকাশ করেছেন এবং শোয়েব আখতারের স্ত্রীর প্রতি সম্মান ও শ্রদ্ধা প্রকাশ করেছেন। এই নতুন সন্তানের আগমন তাদের পরিবারে আরও প্রেরণা ও সাহস যোগাযোগ করে দেয়ার সুযোগ প্রদান করেছে। শোয়েব আখতার, যে বিশ্বের অন্যতম প্রশিক্ষণকারী হিসেবে পরিচিত, এবার পিতার ভূমিকায় নতুন এক দিকে উত্তীর্ণ হয়ে ওঠেন। এই পরিবর্তনের মাধ্যমে তিনি নিজেকে একটি নতুন পর্যায়ে পরিচিত করতে পারেন এবং তার জীবনের নতুন অনুভূতি এবং জমে আসা দায়িত্বে সামর্থ্য প্রদর্শন করতে পারেন।

Leave a Comment