প্রায় 2 বছর পর কমল পেট্রল-ডিজেলের দাম, রাজ্যে কতটা সস্তায় পাওয়া যাবে দেখে নিন

Jacksons

পেট্রল-ডিজেলের

মোদি সরকারের নতুন প্রতিষ্ঠিত দাম কমানো নীতি ভোটের মুখে একটি বৃহত্তর চমক দেওয়া হয়েছে। পেট্রোল এবং ডিজেলের দামের হ্রাস একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত যা লিটার প্রতি জ্বালানি তেলের ২ টাকা মূল্যের হ্রাসের মাধ্যমে প্রত্যাবর্তন হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে সরকারের পুর্বাঞ্চল কর্মকর্তাদের একটি সংবাদ প্রসঙ্গে, আজ শুক্রবার, ১৫ মার্চ, নতুন মূল্যের কার্যকর করা হয়েছে। এই প্রকাশিত মূল্য পরিবর্তনের পর আশা করা হচ্ছে যে এই প্রক্রিয়া সামগ্রিকভাবে মানুষের জীবনে অধিক সুবিধা এনে দিবে।

পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম কমানোর প্রক্রিয়া একটি মৌলিক কদম যা সরকার একই পরিস্থিতিতে সামগ্রিক জনস্বাস্থ্য এবং অর্থনৈতিক উন্নতির জন্য গ্রাহকদের দিকে ধারাবাহিক প্রতিস্থাপন করে আনতে চায়। এই বিষয়ে বিশেষজ্ঞরা মনে করেন যে, এই ধাপের মাধ্যমে সরকার প্রায়েরই জনসাধারণের ভালবাসা পেতে পারে এবং এর ফলে ভবিষ্যতে ভোটের মুখে সফলতা অর্জন করতে পারে। এই পথে সরকারের সুপ্রিয় লক্ষ্য হল সাধারণ জনগণের সাথে সংস্থানিকভাবে যোগাযোগ এবং তাদের সাথে সম্পর্ক মজবুত রাখা।

“পেট্রোল এবং ডিজেলে আবগারি শুল্ক দুটি টাকা কমিয়েছে কেন্দ্র”।

২০২২-এর ৬ এপ্রিলের পর দু’বছরে এই প্রথম পেট্রোল এবং ডিজেলের মূল্যে পতন ঘটানো হল। এটি সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এক্স-এ (পূর্বে পরিচিত টুইটার) দ্বারা ঘোষণা করা হয়েছে। এক্স-এ-এর কেন্দ্রীয় পেট্রোলিয়াম মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী লিখেছেন যে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী পেট্রোল ও ডিজেলের মূল্য লিটার প্রতি ২ টাকা করে কমানোর নিশ্চয়তা দিয়েছেন। মোদী জী পুনরায় সাবলীল করেছেন যে, ভারতের কোটি কোটি পরিবারের কল্যাণ তাঁর মুখ্য লক্ষ্য।

এরকম মূল্য ক্রিয়াকলাপের ফলে, ডিজেলে চলার জন্য অবাধ্য হোক ৫৮ লক্ষ হেভি গুডস ভাহিকেল, ৬ কোটি গাড়ি এবং ২৭ কোটি টু হুইলারের চালক। এ নতুন মূল্য নির্ধারণের ফলে আজ দিল্লিতে প্রতি লিটার পেট্রোলের দাম হয়েছে ৯৪.৭২ টাকা এবং ডিজেলের দাম হয়েছে ৮৭.৬২ টাকা। মুম্বাইতে প্রতি লিটার পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম যথাক্রমে ১০৪.২১ টাকা এবং ৯২.১৫ টাকা।

এই পরিবর্তনের প্রভাব সম্প্রতি পেট্রোলিয়াম উৎপাদন ও সরবরাহ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আরুন সিং নীলখণ্ডের মধ্যে একাধিক আলোচনা নির্বাহ করেন। তারা প্রস্তাবিত মূল্য নির্ধারণকে বিবেচনা করছেন, যা অর্থনৈতিক প্রস্তুতি, ব্যক্তিগত ব্যয় ও অভিবাসনের সাথে মিলিত হতে পারে।

চেন্নাইতে বর্তমানে পেট্রোল এবং ডিজেলের দাম একটি চিত্র প্রদর্শন করছে, যেখানে প্রতি লিটার পেট্রোলের মূল্য হয়েছে ১০০.৭৫ টাকা এবং ডিজেলের মূল্য হয়েছে ৯২.৩৪ টাকা। এই দাম সর্বশেষ বাজারের অবস্থান প্রতিবেদন মোতাবেক বর্তমানে চেন্নাইতে মূল্য বৃদ্ধির প্রমাণ। আজ কলকাতায়, এক লিটার পেট্রোলের দাম প্রতি লিটারে হয়েছে ১০৩.৯৪ টাকা, যা প্রায় ৩ টাকা প্রতিলিটার বৃদ্ধি পেয়েছে। একইভাবে, ডিজেলের দাম প্রতি লিটারে হয়েছে ৯০.৭৬ টাকা, যা কিছুটা কমেছে।

প্রতি রাজ্যে সেলস ট্যাক্স ও ভ্যাট (VAT) এর পরিমাণের উপর ভিত্তি করে পেট্রোল ও ডিজেলের মূল্য নির্ধারিত হয়। এই কারণে, রাজ্যের অনুমতি ও নীতির উপর ভিত্তি করে প্রতিটি রাজ্যে দামের পার্থক্য দেখা যায়। চেন্নাইতে পেট্রোল ও ডিজেলের দামের বৃদ্ধির পরিবর্তন নির্ভর করে সরকারের রাজ্যের অর্থনৈতিক প্রস্তুতি এবং প্রাসঙ্গিক নীতির উপর।

সচরাচর জিজ্ঞাস্য

হ্যাঁ, পেট্রল এবং ডিজেলের দামে কমোন প্রতিবারের মতো কমতে পারে, এটি বিভিন্ন বাজার এবং আন্তর্জাতিক পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে।

পেট্রল এবং ডিজেলের দামে ব্যতিক্রম সংবেদনশীল, তবে প্রাক্তন অভিজ্ঞতা উল্লেখ করে যে সাধারণত প্রতিশ্রুতিমূলক কারণে দামের কমতে পারে প্রতি লিটারে প্রায় 5 থেকে 10 টাকা পর্যন্ত।

পেট্রল এবং ডিজেলের দামের বৃদ্ধি বা কমনে সংশ্লিষ্ট বিষয়গুলি বেশ সমালোচনা উত্সর্গ করে এবং তাদের ওপর প্রভাব পড়ে যে সম্প্রদায়ের কি তাদের ক্ষেত্রে কোন প্রার্থনা প্রদান করবে এবং সাম্প্রদায়িক আবাসিক বা ব্যবসায়িক ব্যক্তিগণের মাধ্যমে কি উত্তাপ তৈরি হতে পারে।

হ্যাঁ, পেট্রল এবং ডিজেলের দামের পরিবর্তন সম্প্রদায়ের মতামতে প্রভাব ফেলতে পারে, তবে এটি আন্তরিকভাবে অনুশীলন করে যেতে পারে যে এই ধরণের পরিবর্তন প্রতিদিনের জীবন ও অর্থনীতির ওপর কী প্রভাব ফেলতে পারে।

উপসংহার

প্রায় ২ বছর পর পেট্রল এবং ডিজেলের মূল্যের কমতি দেখে রাজ্যে একটি উদার স্থিতি তৈরি হতে পারে। এই কমতির ফলে গাড়ি চালানো বা যানবাহন ব্যবহারে খরচ কমে যাবে, যা আমাদের অর্থনৈতিক দিকে প্রভাব ফেলতে পারে। এছাড়াও, পেট্রোলিয়াম ও ডিজেলের দামের কমতি ব্যবসা ও উদ্যোগের জন্য একটি উদ্দীপক হতে পারে।

সাধারণ মানুষের জন্য পেট্রোল এবং ডিজেলের দামের কমতি সুখবর হিসেবে মনে হবে, যারা গাড়ি চালান বা যানবাহন ব্যবহার করেন। এটি তাদের দৈনন্দিন জীবনে বেশি সুবিধা ও অর্থের সাশ্রয় প্রদান করতে পারে। এছাড়াও, ব্যবসাদের ক্ষেত্রেও এই কমতি বিনিয়োগের ক্ষেত্রে নতুন সুযোগ এবং সুবিধা উপস্থাপন করতে পারে।

Leave a Comment